The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এবার মিনিটে সেকেন্ডের সংখ্যা কমে যাবে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা জানি ৬০ সেকেন্ডে এক মিনিট। কিন্তু যদি আমরা বলি ৬০ সেকেন্ড নয়, ৫৯ সেকেন্ডে ১ মিনিট তাহলে নিশ্চয়ই আপনি বড় বড় চোখ করে তাকাবেন!

এবার মিনিটে সেকেন্ডের সংখ্যা কমে যাবে! 1

খুব অদূর ভবিষ্যতে হয়তো এই চমকে যাওয়া তথ্যকেই মেনে নিতে হবে আমাদের। তখন শিশুরা মুখস্ত করবে ১ মিনিট সমান ৫৯ সেকেন্ড। বিজ্ঞানীদের এমন গবেষণার বরাত দিয়ে সম্প্রতি এই তথ্যটি নিশ্চিত করেছে দ্য টেলিগ্রাফ।

সাম্প্রতিক গবেষণা হতে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা যায়, বিগত কয়েক বছর ধরে পৃথিবীর ঘূর্ণন গতি তুলনামূলকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ২০২০ সালে সব থেকে ছোট দিনের সংখ্যা ছিল মোট ২৮টি। ১৯৬০ সালের পর এটাই সবচেয়ে বেশিসংখ্যক কম দিন হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

অপরদিকে বিজ্ঞানীরা আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়ে বলেছেন যে, ২০২১ সালে দিন আরও ছোট হতে পারে। সময় এবং তারিখ অনুযায়ী সূর্যের প্রতি গড় হিসাবে পৃথিবী প্রতি ৮৬,৪০০ সেকেন্ডে একবারে ঘুরে থাকে, যা ২৪ ঘণ্টা কিংবা একটি অর্থ সৌরদিনের সমান হয়।

বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন, ২০২১ সালের গড় দিন ৮৬,৪০০ সেকেন্ডের চেয়েও ০.০৫ মিলি সেকেন্ড কম হবে। পৃথিবী তার নিজ অক্ষে একবার ঘুরতে সময় নিয়ে নিচ্ছে ২৩ ঘণ্টা ৫৯ মিনিট ৫৯.৯৯৯৮৯২৭ সেকেন্ড। যে কারণে ২০২১ সাল সাধারণ বছরের থেকে ১৯ মিলি সেকেন্ড ছোট হবে, যা গড়ে প্রতিদিন প্রায় ০.৫ মিলি সেকেন্ড কম হবে।

সময়ের এই অসামঞ্জস্য নতুন নয়। হ্রাস পাওয়া সময়ের হেরফেরের সমাধান করতে কোনো কোনো বছর এক ‘লিপ সেকেন্ড’ যোগও করা হয়। ষাটের দশকে আণবিক ঘড়ি আবিষ্কারের পর হতে এ পর্যন্ত ২৭ বার এমন ‘লিপ সেকেন্ড’ যোগ করা হয়েছে। সর্বশেষবার ‘লিপ সেকেন্ড’ যোগ করা হয় ২০১৬ সালে।

গবেষণা বলছে যে, তারপর হতেই পৃথিবী তার স্বাভাবিক ঘূর্ণন গতি হতে জোরে ঘুরছে। তাই বিজ্ঞানীরা সমতা ফিরিয়ে আনতে ‘ঋণাত্মকলিপ সেকেন্ড’ প্রণয়নের পরামর্শও দিয়েছেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...