The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ইন্দোনেশিয়ায় সাড়ে ৪৫ হাজার বছরের পুরনো গুহাচিত্রের সন্ধান!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ইন্দোনেশিয়ার একটি গুহায় আনুমানিক সাড়ে ৪৫ হাজার বছর পূর্বের আঁকা একটি ছবির সন্ধান পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগ।

ইন্দোনেশিয়ায় সাড়ে ৪৫ হাজার বছরের পুরনো গুহাচিত্রের সন্ধান! 1

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি’র এক খবরে বলা হয়েছে, দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের লেয়াং তেডোঙ্গের একটি গুহায় বন্য শূকরের ওই ছবিটি পাওয়া গেছে। গুহাচিত্রে প্রাণীর এই ছবি নিয়ে সায়েন্স অ্যাডভান্স জার্নালে একটি প্রতিবেদনও প্রকাশ করা হয়েছে। গাঢ় লাল মেটে রঞ্জক পদার্থ ব্যবহার করে আঁকা সুলাওয়েসি শূকরের প্রমাণ আকৃতির ওই চিত্রটি ওই অঞ্চলে মানুষের বসতি স্থাপনের সবচেয়ে প্রাচীন প্রমাণ হিসেবেও দেখা হয়ে থাকে।

এটির অন্যতম লেখক ম্যাক্সিম উব্যার ওই গুহাচিত্রের ওপরে ক্যালসাইটের মজুদও খুঁজে পান। ইউরেনিয়াম-সিরিজ আইসোটোপ ডেটিংয়ের সাহায্যে যে মজুদের বয়স বের হয়েছে সাড়ে ৪৫ হাজার বছর।

ম্যাক্সিম উব্যার বলেন, যারা এটি বানিয়েছেন, তারা পুরোপুরিই আধুনিক ছিলেন, তারা আমাদের মতোই ছিলেন এবং পছন্দের যে কোনও ছবি আঁকার সক্ষমতা এবং উপকরণও তাদের ছিল।

সায়েন্স অ্যাডভান্স জার্নালের এক প্রতিবেদনে এই বিষয়ে বলা হয়, ১৩৬ সেন্টিমিটার দীর্ঘ এবং ৫৪ সেন্টিমিটার প্রস্থের ছবিটিতে শূকরের মুখে যে শিং আকৃতির পিণ্ড দেখা যাচ্ছে, তা মূলত ওই প্রজাতিটির পূর্ণ বয়স্ক পুরুষেরই বৈশিষ্ট্য।

প্রতিবেদনে আরেক লেখক অ্যাডাম ব্রুম বলেন, শূকরটি অন্য দুই শূকরের লড়াই কিংবা সামাজিক মিথস্ক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করছিল বলেই মনে হচ্ছে।

ইন্দোনেশিয়ায় পাওয়া এই গুহাচিত্রে এখন পর্যন্ত কোনও প্রাণী কিংবা চরিত্রের সবচেয়ে প্রাচীন ছবি মিললেও এটি মানুষের আঁকা সবচেয়ে পুরনো ছবি নয়। এটি মূলত দক্ষিণ আফ্রিকায় হ্যাশট্যাগের মতো দেখতে একটি ডুডল বানানো হয়েছিল প্রায় ৭৩ হাজার বছর পূর্বে, সেটিই এ পর্যন্ত পাওয়া সবচেয়ে পুরনো আঁকা ছবি।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...