স্মার্ট টিভির মাধ্যমে তথ্য চুরি করছে হ্যাকাররা

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ হ্যাকারদের কাছ থেকে কোন কিছুই নিরাপত্তা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। কম্পিউটার, মোবাইল ফোন এর পর এবার স্মার্ট টিভির প্রতি নজর দিয়েছে হ্যাকাররা। সম্প্রতি কয়েকটা ঘটনা বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ইন্টারনেট কানেক্ট থাকা অবস্থায় স্মার্ট টিভির ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে হ্যাকাররা ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করছে।


smart tv

প্রথমেই প্রশ্ন আসতে পারে স্মার্ট টিভি কি? সহজভাবে বললে স্মার্ট টিভি হচ্ছে ইন্টারনেট কানেক্টেড টিভি। যা একই সাথে স্যাটেলাইট ক্যাবলও কানেক্ট করা থাকতে পারে। অর্থাৎ একই সাথে স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল সহ অনলাইনেও টিভি দেখা সম্ভব হবে। স্মার্ট টিভি মানে কেবলই একটা টেলিভিশন নয়। বরং টেলিভিশন থেকে আরো বেশি কিছু। এর মাধ্যমে পছন্দসই গান শোনা, ভিডিও দেখা, ভিডিও গেমস খেলা ইত্যাদি করা যাবে। এছাড়া স্মার্টফোন উপযোগি এপ্লিকেশনও ইনস্টল করা যাবে। ছবি কিংবা ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে স্মার্ট টিভি অনেক বাড়তি সুবিধা দিয়ে থাকে। যেকোন ভিডিও রেকর্ড কিংবা সাময়িক বিরতি দিয়ে রাখা যাবে। ছবি জুম ইন জুম আউট করা যাবে। ঘুরিয়ে ফিরিয়ে সুবিধা মতন যেকোন ভিডিও ছবি দেখা যাবে। সবচেয়ে মজার ফিচারটি হল, স্মার্ট টিভিতে রাখা ক্যামেরার মাধ্যমে আপনিই নিজেই যে কোন কিছু ভিডিও করে ইন্টারনেট এর মাধ্যমে অনলাইনে এ সম্প্রচার করতে পারবেন।

মূলত স্মার্ট টিভির বিল্ট ইন ক্যামেরা অপশনটিই হ্যাকাররা বেছে নিয়েছে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করার জন্য। এই পদ্ধতি হ্যাকাররা সফলও হয়েছেন। এখন ভাবা হচ্ছে কিভাবে এই নিরাপত্তা ত্রুটি সাড়িয়ে নেয়া যায়। সম্প্রতি দেখা গেছে, স্যামসাং স্মার্ট টিভি গুলোতে হ্যাকারা বিল্ট ইন ক্যামেরাকে ব্যবহার করে ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করছে। অবশ্য স্যামসাং এই নিরাপত্তা ত্রুটি দ্রুতই সমাধান করেছে। আক্রান্ত সব টিভির জন্য, গ্রাহকদের কাছে একটি সফটওয়্যার আপডেট পাঠিয়েছে।

tv

বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, শুধু স্যামসাং নয়, ইন্টারনেটে যুক্ত যেকোনো টিভিতেই এই সমস্যা হতে পারে। এ ঝামেলা থেকে দূরে থাকার জন্য টিভিতে অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন বিশ্লেষকরা। এতেও সমাধান না হলে ক্যামেরার ওপরে ট্যাপ লাগিয়ে দেওয়াই ভালো বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

তথ্যসূত্র: দি টেক জার্নাল

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...