আজ পবিত্র ঈদুল ফিতর

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আজ ৯ আগস্ট পবিত্র ঈদুল ফিতর। দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় এই উৎসব পালিত হবে।

Eid Jamat Bangladesh

‘রমজানের ওই রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ।’ পুরো জাতি আজ এক মহা আনন্দঘন পরিবেশে পালন করছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। এই ঈদকে আমরা রোজার ঈদ হিসেবেই অভিহিত করে থাকি। দীর্ঘ এক মাসের সিয়াম সাধনার পর আজকের এই ঈদ প্রতিটি মুসলমানের জন্য অত্যন্ত আনন্দের। বাবা-মা, ভাই-বোনসহ নিকট আত্মীয়ের সঙ্গে ঈদ করার জন্য সবাই ছুটে যান নিজ গ্রামের বাড়িতে। ঈদের আনন্দ তাইতো কখনও ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।

গত এক মাসের রমজানের শুরু থেকেই মার্কেটগুলোতে কেনা-কাটা শুরু হয়েছিল। গতকাল গভীর রাত অবধি সেসব মার্কেটগুলোতে ছিল মানুষের ভীড়। সবাই যে-যার সামর্থ অনুযায়ী কেনা-কাটা করেছেন।

ঈদ ধনী-গরিব সকলের। মহান রাব্বুল আলামিন সবাইকে এক কাতারে দাঁড় করার এক মহান সুযোগ করে দিয়েছেন। এদিক থেকে ঈদ কেবল আনন্দের বার্তাই নিয়ে আসে না, উদ্ভাসিত হয় ইসলামের সাম্যের এক বড় পরিচয়ও।

চাঁদ দেখার সঙ্গে সঙ্গেই ঘরে ঘরে শুরু হয়েছে সাধ্যমতো উপাদেয় খাবারের আয়োজনের তোড়জোড়। ‘সেমাইয়ের ঈদ’ নামে প্রচলিত এই ঈদে নানা রকম সেমাইয়ের সঙ্গে থাকছে ফিরনি, পিঠা, পায়েস, পোলাও, কোরমাসহ সুস্বাদু খাবারের আয়োজন। বিশেষ আয়োজন থেকে বাদ যাবেন না রোগী, বন্দী বা বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত কর্মীরাও। হাসপাতাল, এতিমখানা ও বন্দীদের জন্য কারাগারগুলোতে উন্নতমানের খাবারের ব্যবস্থা থাকবে প্রথাগতভাবে। সরকারি শিশু সদন, ছোটমণি নিবাস, সামাজিক প্রতিবন্ধী কেন্দ্র, আশ্রয়কেন্দ্র, বৃদ্ধাশ্রম, ভবঘুরে কল্যাণকেন্দ্র ও দুস্থ কল্যাণকেন্দ্রেও থাকবে বিশেষ খাবার ও বিনোদনের ব্যবস্থা।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাস্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া বাণী প্রদান করেছেন।

ঈদ উপলক্ষে দৈনিক পত্রিকাগুলো ইতিমধ্যে প্রকাশ করেছে বিশেষ ক্রোড়পত্র। আর এই আনন্দকে বাড়িয়ে দিতে আছে বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলগুলো ৭ দিনব্যাপি ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠানমালা।

ঈদের দিন গণভবনে সকাল সাড়ে নয়টা থেকে রাজনীতিক, কবি, সাহিত্যিক, লেখক, সাংবাদিক, শিক্ষকসহ বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষের সঙ্গে এবং সাড়ে ১১টায় কূটনীতিক ও বিচারপতিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিএনপির চেয়ারপারসন ও বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া ঈদের দিন বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বিশিষ্ট নাগরিকদের সঙ্গে বেলা ১১টা থেকে সোয়া ১২টা পর্যন্ত এবং কূটনীতিকদের সঙ্গে দুপুর সোয়া ১২টা থেকে পৌনে একটা পর্যন্ত শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

রাজধানীতে কখন কোথায় ঈদের জামাত

গতকাল সন্ধ্যায় শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ায় আজ শুক্রবার সারাদেশে পালিত হবে পবিত্র ঈদুল ফিতর। এর মধ্যে শেষ হয়েছে ঈদুল ফিতরের সব প্রস্তুতি। ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুতিও শেষ করেছে জাতীয় ঈদগাহ ও জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ রাজধানীর বিভিন্ন ঈদগাহ কর্তৃপক্ষ। বরাবরের মতোই জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত ও বায়তুল মোকাররমে জাতীয় মসজিদে পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিবারের ন্যায় এবারও দেশের সবচেয়ে বড় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়ে কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে।

জাতীয় ঈদগাহ: হাইকোর্ট সংলগ্ন জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। সেখানে ইমামতি করবেন জাতীয় মসজিদের খতিব অধ্যাপক মাওলানা মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন আহমেদ। মুসল্লিরা যাতে রোদ-বৃষ্টিতে নির্বিঘ্‌েন ঈদের নামাজ আদায় করতে পারেন, সে জন্য পুরো ময়দান শামিয়ানা দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছে।

বায়তুল মোকাররম

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টায়। এরপর ৮টায়, ৯টায়, ১০টায় ও ১১টায় এখানে আরো চারটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

সকাল আটটায় ঈদের জামাত : নয়াপল্টন জামে মসজিদ, আবুজর গিফারী কলেজ মাঠ, কল্যাণপুর হাউজিং এস্টেট জামে মসজিদ, মিরপুর সেকশন ১২, ব্লক ডি ঈদগাহ মাঠ, ধানমন্ডি ঈদগাহ ময়দান, মিরপুর ১২ নম্বর সেকশনের এ ব্লকে হারুন মোল্লাহ ঈদগাহ, পার্ক ও খেলার মাঠ, পূর্ব কাজীপাড়ার বায়তুল সালাম জামে মসজিদ ও পল্লীমা সংসদ ময়দান।

সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত

গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদ অ্যান্ড ঈদগাহ ময়দানে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। একই সময়ে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে মোহাম্মদপুর জামে মসজিদ কমপ্লেক্স, লালবাগ কেল্লা জামে মসজিদে, ঢাকা রেলওয়ে স্টেশন প্লাটফর্মে, দারুস সালামে মারকাজে ইশা্থআতে ইসলাম জামে মসজিদে ও সায়েদাবাদ আরজুশাহ জামে মসজিদে ও বছিলার হাজী লাট মিয়া ঘাট জামে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া দক্ষিণ বনশ্রী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে প্রথমটি সকাল ৭টায় ও দ্বিতীয় জামাত হবে সকাল আটটায়। রূপনগর আরামবাগ ঈদগাহ ময়দান ও বঙ্গবন্ধু উদ্যানে সকাল সাড়ে আটটায় প্রথম ও দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে সোয়া নয়টায় ।

দেওয়ানবাগ দরবার শরীফে তিনটি জামাত হবে। এর মধ্যে প্রথমটি সকাল ৮টায়, দ্বিতীয়টি সাড়ে ৯টায় ও তৃতীয়টি সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে। নীলক্ষেত বাবুপুরা শাহ্‌ সাহেব বাড়ি মরিয়ম বিবি শাহী মসজিদে প্রথম জামাত হবে সাড়ে ৮টায় ও দ্বিতীয়টি সকাল ১০টায়। কাঁটাবনে বাংলাদেশ মসজিদ মিশনের কেন্দ্রীয় মসজিদে সকাল ৭টায় প্রথম, পৌনে ৮টায় দ্বিতীয় ও সাড়ে আটটায় তৃতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) মাঠে সকাল পৌনে আটটায় জামাত হবে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...