The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

সৌদি আরবে এবার পাঠ্যক্রমে মহাভারত-রামায়ণ!

এই পরিকল্পনার হাত ধরে সৌদি আরবের শিক্ষা ব্যবস্থার দৃষ্টিভঙ্গিতে আমূল পরিবর্তন সাধিত হবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এবার সৌদি আরবের স্কুলে পড়ানো হবে মহাভারত-রামায়ণ! বিভিন্ন দেশের সংস্কৃতি, ইতিহাস, ধর্ম ইত্যাদি বিষয়ে পড়ানোর এমন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন স্বয়ং সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।

সৌদি আরবে এবার পাঠ্যক্রমে মহাভারত-রামায়ণ! 1

হিন্দুস্তান টাইমস এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি আরব মুসলিম প্রধান দেশ হলেও সেখানে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ ভারতীয় বসবাস করেন। সৌদি সরকারের সঙ্গে ভারতীয় কমিউনিটির যোগাযোগও বেশ ভালো। বিশেষ করে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি অনুরক্তও।

সৌদি আরবের শিক্ষা ক্ষেত্রকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য অন্যান্য দেশের ইতিহাস ও সংস্কৃতিকে শেখার প্রতি জোর দিয়েছেন বর্তমান সৌদি প্রশাসন। বিশেষ করে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান এদিক থেকে বেশি এগিয়ে থাকতে চান। তার এই নতুন উদ্যোগটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ভিশন ২০৩০’। সেই লক্ষ্যেই এবার মহাভারত-রামায়ণকে সৌদি আরবের সিলেবাসে অন্তর্গত করা হয়েছে।

সৌদি আরবের প্রশাসন সূত্রের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, রামায়ণ এবং মহাভারত পড়ার মাধ্যমে সেখানকার শিক্ষার্থীরা ভারতীয় সংস্কৃতির যে ঐতিহ্য রয়েছে, সেই সম্পর্কে জ্ঞানও অর্জন করতে পারবেন। ভারতীয় সংস্কৃতির পাশাপাশি আয়ুর্বেদ এবং যোগ সম্পর্কেও যেনো শিক্ষার্থীরা পর্যাপ্ত জ্ঞান অর্জন করতে পারেন সে বিষয়টিও যথাযথভাবে তদারক করছে সৌদি সরকার। সেই জন্যই পর্যায়ক্রমে এগুলোকে স্কুলপাঠ্যের আওতায় আনা হয়েছে।

সৌদি আরবে ইতিপূর্বে ইংরাজি শিক্ষা বাধ্যতামূলক না থাকলেও নতুন সিলেবাসে সেটি করা হয়েছে। মনে করা হচ্ছে যে, এই পরিকল্পনার হাত ধরে সৌদি আরবের শিক্ষা ব্যবস্থার দৃষ্টিভঙ্গিতে আমূল পরিবর্তন সাধিত হবে। সম্প্রতি ছেলের সিলেবাসের একটি স্ক্রিনশট ট্যুইটারে শেয়ার করেছেন সৌদির জনৈক বাসিন্দা। তিনি লিখেছেন যে, ‘সৌদি আরবের নতুন ভিশন ২০৩০ উদার এবং সহনশীল মানুষ তৈরিতে ভূমিকা রাখবে।’

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...