The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

যুক্তরাষ্ট্রের সিডিসির তালিকায় অতি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশ বাংলাদেশ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের দিক থেকে বাংলাদেশসহ মোট ৬১টি দেশকে অতি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশের তালিকায় নিয়ে এসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিভাগ।

যুক্তরাষ্ট্রের সিডিসির তালিকায় অতি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশ বাংলাদেশ 1

দেশটির সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) তালিকা অনুযায়ী মহামারির মধ্যে এসব দেশ ভ্রমণ না করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের। যদি একান্তই এসব দেশে ভ্রমণ করতে হয়, তাহলে কোভিড-১৯ টিকা নেওয়ার পরই তা করতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশের পাশাপাশি সিডিসির অতি উচ্চ ঝুঁকির তালিকায় আরও রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ এবং মিয়ানমারের নাম। এছাড়াও উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশের তালিকায় রয়েছে ফ্রান্স এবং যুক্তরাজ্যের নাম।

সম্প্রতি সিডিসি বিশ্বের দেশগুলোর সংক্রমণ পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করার পর নাগরিকদের এই ভ্রমণ পরামর্শ দিয়েছে।

অতি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ তালিকায় থাকা এশিয়ার অপর দেশগুলো হলো – বাহরাইন, ইরাক, কুয়েত, উত্তর কোরিয়া, মঙ্গোলিয়া, সৌদি আরব, সিরিয়া, উজবেকিস্তান এবং ইয়েমেন।

সংস্থাটি দেশগুলোকে মোট ৪টি ভাগে ভাগ করেছে। পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ যেসব স্থানে, সেই দেশগুলোকে অতি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশের শ্রেণীতে রাখা হয়েছে। এরপর রয়েছে যথাক্রমে- উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ, মোটামুটি ঝুঁকিপূর্ণ এবং নিম্ন ঝুঁকিপূর্ণ। আর বাংলাদেশকে মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থার দেশগুলোর মধ্যে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছর প্রাদুর্ভাবের পর মাঝে পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলেও করোনা ভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বর্তমানে নাকাল বাংলাদেশ। ভারতের উদ্ভূত ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশের সীমান্তের জেলাগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...