The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

স্যামসাং ওয়ান-স্টপ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট চালু করলো

ক্রেতাদের সকল স্যামসাং মোবাইল ও কনজ্যুমার ইলেকট্রনিক পণ্য সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য প্রদান করতে ওয়েবসাইটটি নিয়মিত আপডেট হবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশের ক্রেতাদের জন্য ওয়ান-স্টপ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট চালু করেছে। ক্রেতারা এখন থেকে ওই ওয়েবসাইটে ঢুকে স্যামসাং পণ্য সম্পর্কে জানতে পারবেন।

স্যামসাং ওয়ান-স্টপ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট চালু করলো 1

দেশের ক্রেতাদের সুবিধার্থে সম্প্রতি স্যামসাং এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট চালু করেছে। ক্রেতারা এখন থেকে https://www.samsung.com/bd/ – এই সাইটে গিয়ে স্যামসাংয়ের মোবাইল ডিভাইস (স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেট), ঘড়ি, টেলিভিশন, সাউন্ড ডিভাইস, হোম অ্যাপ্লায়েন্স (রেফ্রিজারেটর, ওয়াশিং মেশিন, এয়ার কন্ডিশনার, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, এয়ার পিউরিফায়ার), কম্পিউটিং ডিভাইস এবং বিশ্বের এক নম্বর ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ডের তৈরি অন্যান্য অত্যাধুনিক পণ্য দেখতে পারবেন, পাশাপাশি এ সম্পর্কে সকল তথ্য জানতে পারবেন।

বাংলাদেশে যাত্রা শুরুর পর থেকে, স্যামসাং দেশের বাজারে ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করেছে এবং অন্যতম নির্ভরযোগ্য মোবাইল ও কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস ব্র্যান্ড হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে। দেশের ক্রেতাদের অভ্যাস সম্পর্কে স্যামসাংয়ের মূল্যায়ন ব্র্যান্ডটিকে এর পণ্যে বৈচিত্র্যতা আনতে ও ক্রেতাদের কাছে জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে সক্ষম করেছে। ক্রেতাদের সংযুক্তি ও উন্নত অভিজ্ঞতা প্রদানে স্যামসাংয়ের ধারাবাহিক প্রচেষ্টার সাক্ষ্য রেখে, দেশের ক্রেতাদের জন্য নির্ধারিত অফিশিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তাদের কাছে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে আরও একধাপ এগিয়ে গেলো স্যামসাং।

এ ব্যাপারে স্যামসাং বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোয়ানসাং উ বলেন, ‘দেশের ক্রেতারা যাতে স্যামসাংয়ের পণ্য এবং সেবা সম্পর্কিত সকল তথ্য জানতে পারেন, কীভাবে ক্রেতারা পণ্য ক্রয় করতে পারবেন, এজন্যই এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করা হয়েছে। আমরা অত্যন্ত আশাবাদী যে, আমাদের ক্রেতারা এখন স্যামসাং এর সকল পণ্য সম্পর্কে জানতে ওয়ান-স্টপ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে এই ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করতে পারবেন।’

ক্রেতাদের সকল স্যামসাং মোবাইল ও কনজ্যুমার ইলেকট্রনিক পণ্য সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য প্রদান করতে ওয়েবসাইটটি নিয়মিত আপডেট করা হবে। খবর প্রেস বিজ্ঞপ্তির।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...