The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

দাঁত সাদা করতে ব্যবহার করুন বেকিং সোডা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমাদের মধ্যে অনেকেই বেশ বিব্রত হন দাঁতের হলদেটে ভাবের জন্য। দাঁত সাদা করতে ব্যবহার করুন বেকিং সোডা।

দাঁত সাদা করতে ব্যবহার করুন বেকিং সোডা 1

দাঁত কীভাবে সাদা এবং সুন্দর করবেন, তা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন অনেকেই। তবে সৌভাগ্যবশত আপনার ঘরেই রয়েছে এমন একটি উপাদান, যা দাঁত সাদা করতে বেশ কার্যকর ভূমিকা রাখে। এই উপদানটি হলো বেকিং সোডা। এটি দাঁত সাদা করতে ভিষণভাবে কাজ করে। বেকিং সোডা দিয়ে দাঁত সাদা করার পদ্ধতি আজ জেনে নিন।

# একটি ছোট কাপে আধা চা চামচ বেকিং সোডা নিয়ে নিন। এর মধ্যে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস কিংবা পানি এতে যোগ করুন। এবার এই মিশ্রণটি দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন।

# এখন এই পেস্টটি টুথব্রাশে বা আঙুলে লাগিয়ে অন্তত ২ মিনিট ধরে দাঁতে ঘষতে থাকুন। তারপর কুলি করুন। তবে দুই মিনিটের বেশি কখনও ঘষবেন না। এতে করে দাঁতের অ্যানামেল ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

# একদিন পরপর টানা ১ থেকে ২ সপ্তাহ এটি করতে পারেন।

# এক সপ্তাহ পর এই ব্যবধান আরও বাড়াতে হবে। দু’দিন পরপর এভাবেই দাঁত ব্রাশ করুন। কিছুদিনের মধ্যেই এর ফলাফল লক্ষ করতে পারবেন।

তবে একটি জিনিস মনে রাখতে হবে আর সেটি হলো, এটি কিন্তু সাধারণ পেস্ট দিয়ে ব্রাশের কোনো বিকল্প নয়। এটি করলেও সাধারণ পেস্ট দিয়ে প্রতিদিন যেভাবে দাঁত ব্রাশ করেন ঠিক সেভাবে করতে হবে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...