The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

সদ্যজাত শিশু পাওয়া গেল রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ডাস্টবিনে!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ সোমবার সকালে ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকার নুরজাহান রোডের পাশের ডাস্টবিন থেকে এক সদ্যজাত শিশু উদ্ধার হয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে কে বা কারা শিশুটিকে ফেলে গেছে।


LIFE-GENDER

সোমবার সকাল দশটার দিকে নুরজাহান রোডের পাশের ডাস্টবিনে রাস্তার পথচারীরা একটি শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনতে পান সবাই ঘটনা দেখতে ডাস্টবিনের কাছে জোড় হলে সেখানে কাঁথা মোড়ানো অবস্থায় ডাস্টবিনের ময়লায় এক শিশু দেখতে পান। বেশ কিছুক্ষণ সেভাবেই শিশুটি ডাস্টবিনেই কাঁদতে থাকে হটাৎ এক দম্পতী পাশে দিয়ে যাওয়ার সময় শিশুটির বিষয়ে আগ্রহী হয়ে উঠেন এবং শিশুটিকে কোলে তুলে নেন এবং শিশুটিকে নিয়ে মোহাম্মদপুর থানায় যান।

এদিকে এক মিডিয়া মোহাম্মদপুর থানার বরাত দিয়ে জানায়, “শিশুটির শারীরিক অবস্থা ভালো নয়। এই মুহূর্তে শিশুটির শরীর অস্বাভাবিক শীতল হয়ে আছে ফলে শিশুটিকে জরুরী চিকিৎসার আওতায় নিতে হয়েছে। এর আগে অবশ্য অই দম্পতী পুলিশকে শিশুটি নিজেদের কাছে রাখার আগ্রহের কথা জানায়। তবে মোহাম্মদ পুর থানা পুলিশ শিশুটিকে তাদের কাছে আপাতত না দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপতালে শিশু বিভাগে ভর্তি করেছেন। পুলিশ জানিয়েছেন আগে শিশুটির প্রকৃত বাবা মা’র সন্ধান চালান হবে এবং যদি না পাওয়া যায় সেক্ষেত্রে আগ্রহী এই দম্পতীর কাছেই শিশুটি রাখা হবে। আগ্রহী দম্পতীরা ঢাকায় দর্জি ব্যাবসার সাথে সম্পৃক্ত।

মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুল হক বলেন, “শিশুটির এই মুহূর্তে অবস্থা অতোটা ভালো নয়, ওকে দেখে মনে হচ্ছে তার বয়স আনুমানিক ২,৩ দিন হবে। তবে সুস্থ হয়ার আগ পর্যন্ত এবং প্রকৃত অভিবাবক খুজে না পাওয়া পর্যন্ত শিশুটিকে তেজগাঁওয়ের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হবে এর পর তার অভিবাবকের সন্ধান না পেলে দর্জি দম্পতীকে শিশুটির দত্তক দেয়া যাবে।

ঢাকা মেডিক্যাল সুত্রে জানা গেছে শিশুটি মারাত্মক রকম অপুষ্টিতে ভুগছে। ফলে তার এখন জরুরী বিশেষ চিকিৎসা প্রয়োজন। তাকে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে এবং বাদ বাকি ব্যাবস্থাও নেয়া হচ্ছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...