এবার দিল্লি চ্যাম্পিয়ন গলফার সিদ্দিকুর

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় এশিয়ান ট্যুর শিরোপা জিতলেন বাংলাদেশের সেরা গলফার সিদ্দিকুর। প্রত্যাশার চাপের মাঝে থেকেও নিজের দৃঢ় মনোভাব নিয়ে হিরো ইন্ডিয়ান ওপেন জিতে দেশের মুখ উজ্জ্বল করলেন তিনি।


siddikur

প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বকাপ গলফে খেলতে যাচ্ছেন সিদ্দিকুর। তাই তার আগে এই হিরো ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন ২৮ বছর বয়সী সিদ্দিকুর। এরই ধারাবাহিকতায় ১৭তম হোলে অবিশ্বাস্য এক ‘বার্ডি’ করে আবার এক শট এগিয়ে যান সিদ্দিকুর। ১৮তম বা শেষ হোলে মাথা ঠান্ডা রেখে পার করে ১৪ আন্ডার পার (টুর্নামেন্টের মোট পারের চেয়ে ১৪ শট কম খেলা ) নিয়ে শিরোপা জেতেন তিনি।

দিন শেষে সিদ্দিকুরের কণ্ঠেও ১৮ নম্বর অর্থাৎ শেষ হোলে সাফল্য পাওয়ার তৃপ্তি। হাসতে-হাসতে তিনি বলেন, “কোনো বোগি ছাড়া একটা পুরো রাউন্ড শেষ করতে পারা সব সময়ই আনন্দের। এটা যে করতে পারবো, তা আমি ভাবতেই পারিনি।”

“১৮ নম্বরটা ছিল আমার সেরা বার্ডি। তৃতীয় শটটা ছিল বেশ কঠিন আর সহজ বার্ডির জন্য ঐ শটে আমাকে হোলের খুব কাছে বল নিতে হতো। বার্ডি পাওয়ার ব্যাপারে আমার ভীষণ আত্মবিশ্বাস ছিল। যদিও ভাবতেই পারিনি বলটা হোলের এত কাছাকাছি পৌঁছাবে।”

এর আগে টানা তিনটি বোগির পর ফিরে আসেন সিদ্দিকুর। ১৩ ও ১৪ নম্বর হোলে পান ‘বার্ডি’। কিন্তু ১৫তম হোলে ‘ট্রিপল বোগি’ করে নিজের পথটা কঠিন করে ফেলেন তিনি। পরের হোলে আবার করেন বোগি।

২০১০ সালের অগাস্টে ব্রুনাই ওপেন জিতেছিলেন সিদ্দিকুর। সেটাই বাংলাদেশি কোনো গলফারের প্রথম এশিয়ান ট্যুর শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব।

ভারতের গলফারদের কাছে ‘পঞ্চম মেজর’ হিসেবে পরিচিত ইন্ডিয়ান ওপেনে সিদ্দিকুরের সঙ্গে পেরে উঠছিলেন না খ্যাতনামা ভারতীয় খেলোয়াড়রা। তৃতীয় রাউন্ড শেষে পারের চেয়ে মোট ১৩ শট কম খেলে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন এস.এস.পি. চৌরাশিয়া। ১২ শট কম খেলে যৌথভাবে তৃতীয় স্থানে ছিলেন দিল্লি গলফ ক্লাবেই বেড়ে ওঠা রশিদ খান ও ফিলিপাইনের অ্যাঞ্জেলো কে।

প্রথম রাউন্ডে ছয়টি বার্ডির সাহায্যে পারের চেয়ে ছয় শট কম খেলেছিলেন সিদ্দিকুর। আর শুক্রবার দ্বিতীয় রাউন্ডে ছয়টি বার্ডির পাশাপাশি একটিতে ‘ঈগল’ (কোনো হোলে পারের চেয়ে দুই শট কম খেলা) করলেও দুটি ‘বোগি’ করায় দুই রাউন্ড মিলে ১২ শট কম নিয়ে এককভাবে শীর্ষে ছিলেন তিনি।

প্রথম তিন রাউন্ড দারুণ খেলে পারের চেয়ে মোট ১৭ শট কম খেলে একক ভাবে শীর্ষে ছিলেন দেশের প্রথম পেশাদার এই গলফার। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে ইন্ডিয়ান ওপেনে খেলার পর ১৪ থেকে ১৭ নভেম্বর মেলবোর্ন মাস্টার্স গলফ টুর্নামেন্টে অংশ নেবেন তিনি।

তথ্যসূত্রঃ DailyStar

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...