The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মৃত মাকে স্মরণ করতে বাবাকে নিয়ে ছোট মেয়ের অসাধারণ উদ্যোগ!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ Ben Nunery এর স্ত্রী মারা যান ২০১১ সালে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে, রেখে যান ছোট শিশু অলিভিয়াকে, এবার অলিভিয়া বাবাকে নিয়ে মৃত মাকে স্মরণ করে ক্যামেরায় বন্ধী হল ভিন্নধর্মী এক অভিব্যক্তিতে।


moving-without-mom-ben-nunery-1

বেন এবং আলীর বিয়ে হয় ২০০৯ সালে, বিয়ের ২ বছরের মাথায় আলী মরণ ব্যধি ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান, রেখে যান অলিভিয়াকে। তবে আলী বেঁচে থাকতেই বিয়ের কিছুদিনের মাঝেই আলী এবং বেন মিলে নতুন একটি বাড়ি কিনে নেন। বাড়ি কেনার পর আলী সিদ্ধান্ত নেয় সে তাঁর স্বামীর সাথে কিছু ছবি তুলবে যা ভবিষ্যতে তাদের এই সময়টিকে স্মরণীয় করে রাখবে।

যাই হক আলী মারা যাওয়ার ২ বছর পর বেন এবং অলিভিয়া তাদের আগের বাড়ি ত্যাগ করে নতুন বাড়িতে উঠে, তবে পুরোনো বাড়ি ফেলে আসার সময় বেন এবং অলিভিয়া আবার একটি ফটোশুটের আয়োজন করে যেখানে অলিভিয়ার মা বেন এর সাথে ছবি তুলেছিল,  আশ্চর্য হলেও সত্যি ছোট্ট অলিভিয়া মায়ের আদলেই সব ক্ষেত্রে ছবিতে ভঙ্গিমা দিয়েছে।

কিছু কিছু ছবি অলিভিয়ার মায়ের সাথে অবিকল মিলেও যায়। চলুন একে একে দেখে নিই আলীকে ছাড়া পিতা কন্যার আবেগের কিছু ছবিঃ

প্রথম ছবিতে বেন এবং আলী বিয়ের দিন, দ্বিতীয় ছবিতে অলিভা'র সাথে বেন।
প্রথম ছবিতে বেন এবং আলী বিয়ের দিন, দ্বিতীয় ছবিতে অলিভিয়া’র সাথে বেন।

 

অলিভা মায়ের curling iron ব্যবহার করার চেষ্টা করছে যা এক সময় তাঁর মা আলী ব্যবহার করত।
অলিভিয়া মায়ের curling iron ব্যবহার করার চেষ্টা করছে যা এক সময় তাঁর মা আলী ব্যবহার করত।
প্রথম ছবিতে আলী বিয়ের পর স্বামীর কাছে সিঁড়ি দিয়ে ছুটে আসছে নিচে, অন্য ছবিতে একই সিঁড়িতে অলিভা বাবার সাথে খেলা করছে।
প্রথম ছবিতে আলী বিয়ের পর স্বামীর কাছে সিঁড়ি দিয়ে ছুটে আসছে নিচে, অন্য ছবিতে একই সিঁড়িতে অলিভিয়া বাবার সাথে খেলা করছে।
একি রুমে বিয়ের পর বেন এবং আলী, অন্য ছবিতে বেন সাথে অলিভা।
একি রুমে বিয়ের পর বেন এবং আলী, অন্য ছবিতে বেন সাথে অলিভিয়া।
বিয়ের পর বেন-আলীর জানলা দিয়ে প্রথম আকাশ দেখা। পাশের ছবিতে বেন  অলিভার সৃতিচারণ!
বিয়ের পর বেন-আলীর জানলা দিয়ে প্রথম আকাশ দেখা। পাশের ছবিতে বেন অলিভিয়ার স্রিতিচারণ!
বেন অলিভা মাঝের কাঁচের পরিকে অলিভা মা বলেই ডাকে।
বেন অলিভা মাঝের কাঁচের পরিকে অলিভিয়া মা বলেই ডাকে।
মায়ের কথা মনে করে ছবি তোলার সময়েই অলিভার হাতে পালক এসে পড়ে।
মায়ের কথা মনে করে ছবি তোলার সময়েই অলিভিয়ার হাতে পালক এসে পড়ে।
বেন অলিভার জন্য আরও বড় একটি ঘর কিনেছে সেখানে অলিভা আরও অনেক বেশি জায়গা পাবে খেলতে, কিন্তু অলিভা কি করে তাঁর মাকে ভুলবে?
বেন অলিভিয়ার জন্য আরও বড় একটি ঘর কিনেছে সেখানে অলিভিয়া আরও অনেক বেশি জায়গা পাবে খেলতে, কিন্তু অলিভা কি করে তাঁর মাকে ভুলবে?
অলিভা কি মাকে ছারা বেড়ে উঠতে পারবে? বাবার আদরে অলিভাকি মায়ের শোক ভুলতে পারবে?
অলিভিয়া কি মাকে ছারা বেড়ে উঠতে পারবে? বাবার আদরে অলিভিয়া কি মায়ের শোক ভুলতে পারবে?
মায়ের অবর্তমানে বাবাই অলিভার খেলার সাথী।
মায়ের অবর্তমানে বাবাই অলিভিয়ার  খেলার সাথী।
ছোট অলিভিয়া বাবাকে অনেক ভালবাসে, মায়ের অবর্তমানে বাবা যে তাঁর সব কিছু।
ছোট অলিভিয়া বাবাকে অনেক ভালবাসে, মায়ের অবর্তমানে বাবা যে তাঁর সব কিছু।

সূত্রঃ Boredpanda

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...