The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

ভ্রমণকালীন সময়ে ফ্লু জনিত রোগ থেকে বাঁচতে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ টিপস জানুন!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ ভ্রমণ সবচেয়ে বেশি আনন্দময়। ভ্রমণ পিপাসুরা পরিকল্পনা হয়ত শুরু করেন এই কোথায় ঘুরতে যাবেন। ভ্রমণের সময় অনেকেই ইনফ্লুয়েঞ্জা, ঠান্ডা জ্বর, ভাইরাস জ্বরে আক্রান্ত হয়। সুতরাং দেশে কিংবা দেশের বাইরে ভ্রমণের পরিকল্পনা থাকলে ভ্রমণকালীন সময়ে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সম্পর্কিত কয়েকটি টিপস জেনে নেওয়া খুব দরকার।


Concern+Grows+Swine+Flu+Patient+Numbers+Increase+CcpoKabqMJ4l

ভ্রমণকালীন সময়ে জ্বর – ঠান্ডা জনিত রোগ থেকে বেঁচে থাকতে যে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ টিপস জেনে নাওয়া ভালোঃ

  • ভ্রমণের সময় স্বাস্থ্যসম্মত রুমাল সাথে রাখুন। সেটা ব্যবহার করে যানবাহনের সিট, বাথরুমের বেসিন কিংবা আপনি যা স্পর্শ করছেন তা আগে মুছে নিন।
  • নাক বা মুখের কাছে হাত নিবেন না, যাতে করে জীবাণু সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।
  • যানবাহনের ভেতর আপনার পাশের সিটের যাত্রী যদি ঠান্ডা জ্বর কিংবা কাশিতে আক্রান্ত থাকেন কোন লজ্জা না করে ঐ সিট বদলে ফেলুন। সবচেয়ে ভালো হচ্ছে যদি মাস্ক ব্যবহার করা যায়।
  • বিমানে ভ্রমণ করলে অবশ্যই বিমানের সম্মুখভাগের সিটে আসন গ্রহন করুন। অবশ্যই মাঝখানের সিটগুলো এড়িয়ে চলবেন, কারণ রোগাক্রান্ত যাত্রীদের সংস্পর্শের সম্ভাবনা বেশি থাকে এই আসনগুলোতে অবস্থান করলে।
  • ভ্রমণের সময় হোটলে অবস্থানরত অবস্থায় পুষ্টিকর খাদ্যগ্রহণ, পর্যাপ্ত রেস্ট গ্রহণ করুন। এর ফলে হজম ক্ষমতা ঠিক থাকে এবং শক্তি অর্জন হয়ে শরীর রোগাক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।
  • ডেটল কিংবা সেভলন দিয়ে হাত পরিষ্কার রাখুন সবসময়। কোন কারণ ব্যতীত অন্যান্য যাত্রীদের সাথে হ্যান্ড সেক করা থেকে বিরত থাকুন।
  • ভ্রমণের সময় বিমানের কিংবা হোটেলের কম্বল, কাথা ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। এরচেয়ে ভালো বাসা থেকে কম্বল বা কাথা বহন করে নেওয়া। কারণ বিমানের কিংবা অন্যান্য জায়গার কম্বল বা কাথা জীবাণুযুক্ত থাকতে পারে।

এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার যে ভ্রমণ অবস্থায় যে কেউ পাতলা পায়খানা, গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা, জ্বর, মাথাব্যথা, ঠান্ডা লাগা, সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত হতে পারেন। সেক্ষেত্রে সবার উচিত এইসব রোগ থেকে বেঁচে থাকার সর্বোচ্চ সতর্ক থাকা এবং যদি রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন তাহলে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে চিকিৎসা গ্রহণ করা উচিত।

তথ্যসূত্রঃ নিউজসম্যাক্সহেলথ

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx