The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কুকুরের মস্তিষ্কের সঙ্গে মানুষের মস্তিষ্কের মিল রয়েছে!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ কুকুর এবং মানুষের বন্ধুত্ব খুব প্রাচীন কাল থেকেই। তবে এতদিন যদিও কুকুর এবং মানুষের মস্তিষ্কের মাঝে মিলের বিষয়ে তেমন ধারনা ছিলনা। তবে এবার গবেষকরা কুকুরের মস্তিষ্কের সঙ্গে মানুষের মস্তিষ্কের আশ্চর্য মিল খুঁজে পেয়েছেন।


dog-thinkstock-86536356-617x416

হাঙ্গেরির এলদল গবেষক কুকুর এবং মানুষের মস্তিষ্কের গঠন এবং উদ্দীপনার বিষয়ে গবেষণা চালান। তারা গবেষণায় বিস্ময়কর তথ্য খুঁজে পান। গবেষণায় দেখা যায়, কুকুর এবং মানুষের মাঝে আশ্চর্য মস্তিষ্ক গত মিল রয়েছে। মানুষের মতই কুকুরের মস্তিষ্ক শব্দে সাড়া দিতে সক্ষম। এ ছাড়াও মানুষের মত কুকুরের মস্তিষ্কও আবেগে সাড়া দিতে পারে।

গবেষণায় ১১টি পোষা কুকুরকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। যাদের মাঝে সকলকেই বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এসব প্রশিক্ষণ ১২টি ধাপে অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণ শেষে কুকুরদের এমআরআই স্ক্যানারের ভেতরে শুয়ে থাকার বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। প্রত্যেকটি কুকুরকে এমআরআই স্ক্যানারের ভেতরে ৮ মিনিট রাখা হয় এবং তাদের মস্তিষ্কের বিষয়ে বিস্তারিত গবেষণা চালানো হয়। এক্ষেত্রে গবেষকরা কুকুরদের ২০০ ধরনের শব্দ শ্রবণ করান এবং তাতে কুকুরদের মানসিক এবং শারীরিক অভিব্যক্তি অনুসরণ করেন। এমআরআই স্ক্যানারে কুকুরদের মস্তিষ্কের উদ্দীপনা পর্যালোচনা করা হয়।

SONY DSC

এর পর গবেষকরা ২২ জন স্বেচ্ছাসেবী মানুষের মস্তিষ্কের স্ক্যান করেন এবং তাদেরও ঐ একই ২০০ ধরনের শব্দের পরীক্ষার সম্মুখীন করেন। গবেষকরা বিস্ময়ের সাথে লক্ষ্য করেন কুকুর এবং মানুষের মস্তিষ্কের আশ্চর্য মিল রয়েছে।

ড. অ্যান্ডিক্স বলেন, ‘কাজের এবং অবস্থানের দিক দিয়ে কুকুরের মস্তিষ্ক মানুষের মস্তিষ্কের খুবই কাছাকাছি। শব্দ শ্রবণের ক্ষেত্রে কুকুরের মস্তিষ্কের যেসব এলাকায় উদ্দীপনার বিষয়টি আমরা পেয়েছি, তা খুবই আশ্চর্যজনক ভাবে মানুষের মস্তিষ্কের উদ্দীপনার সাথেই মিলে গেছে।”

এধরণের গবেষণা এর আগে কখনও করা হয়নি। এটিই কুকুর এবং মানুষের মস্তিষ্কের বিষয়ে প্রথম কোন গবেষণা এবং এতে পাওয়া ফলাফল গবেষকদের এই বিষয়ে আরও ভাবতে প্রভাবিত করছে।

সূত্রঃ Huffingtonpost

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...