The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

যে শহরে গাড়ী চলাচলের কোন রাস্তা নেই

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আপনি কি এমন একটি স্থান খুজছেন যেখানে কোন গাড়ী নেই, নেই কোন যান্ত্রিকতা কিংবা নেই কোন দূষণ। তবে আপনার সেই স্বপ্নটি পূরণ করবে গিথ্রোন শহর।


article-2093144-11804A44000005DC-547_964x553

নেদারল্যান্ডের আমস্টারডাম শহর থেকে প্রায় ৫৫ মেইল উত্তরে অবস্থিত এই গিথ্রোন শহর। এই শহরের মূল বৈশিষ্ট্য হলো এখানে কোন গাড়ী চলার রাস্তা নেই। শহরের ভেতর দিয়ে বয়ে গিয়েছে আঁকাবাঁকা অনেক খাল, চলাচলের মূল মাধ্যম এই খালগুলো। শহরের ভেতর প্রায় ১৮০টি ব্রীজ। চলাচলের মূলবাহন হলো পায়ে হাটা, নৌকা অথবা বাইক।

800px-Giethoorn_01

গিথ্রোন হল গাড়িমুক্ত শহর। গিথ্রোনকে বলা হয় ডাচ ভেনিস। তাছাড়াও একে বলা হয় উত্তরের ভেনিস। এর অনন্য সৌন্দর্যমন্ডিত দৃশ্যাবলীর জন্য একে বলা যায় ছবির মতো গ্রাম। এর আঁকাবাঁকা খালের দিকে তাকালে আপনার মনে হবে রবীন্দ্রনাথের সেই ছোটনদীর কথা। শহরের মাঝে রয়েছে উইডেন ন্যাশনাল পার্ক। এটি মূলত ডেনমার্কের সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক সংরক্ষণশালা যা দর্শনার্থীরা নৌকায় চড়ে উপভোগ করে থাকেন।

o-GIETHOORN-NETHERLANDS-57j0

গ্রীষ্মের দাবদাহে আপনি চোখ বন্ধ করে ঘুরে আসতে পারেন গিথ্রোন শহর থেকে কিন্তু এটি শীতকালীন ভ্রমনের জন্য বেশি জনপ্রিয়। শীতে এখানে বরফাচ্ছাদিত খালে কিংবা লেকে আইসস্কেট করতে পারবেন। তাই আর কোন কিছু চিন্তা না করে আপনার পরবর্তী ভ্রমনের জন্য বেছে নিন নেদারল্যান্ডের গিথ্রোন শহর।

o-GIETHOORN-NETHERLANDS-570f

১৯৫৮ সালে ডাচ পরিচালক বার্ট হাস্ট্রা তার বিখ্যাত ছবি ফারফেয়ারের মাধ্যমে এই শহরকে তুলে ধরেন এবং শহরটি পরিচিতি লাভ করে। মজার বিষয় হলো ১২৩০ সালে ভূমধ্যসাগরীয় জলদস্যু দ্বারা গ্রামটি তৈরি হয়।

তথ্যসূত্রঃ হাফিংপোস্ট

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...