The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

অপহরণ ‘ভাইরাস’ ধেয়ে আসছে রাজধানীর দিকে: আব্দুল্লাহপুরে এক ব্যবসায়ী অপহরণ

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ অপহরণের অপ্রতিরোধ্য জীবাণু নারায়নগঞ্জ থেকে এবার ধেয়ে আসছে রাজধানীর দিকে। আব্দুল্লাহপুরে এক ব্যবসায়ী অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশব্যাপী মহা আতঙ্কের নাম অপহরণ। এই অপহরণ ‘ভাইরাস’ নির্মূল করা জরুরি।


kidnapping

নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলামকে উদ্ধারের এক দিন যেতে না যেতেই রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর থেকে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ করা হয়েছে। হোটেল ব্যবসায়ী মো: জসিম উদ্দিনকে (২৬) অপহরণ করা হয়েছে। তবে এবার একটু ভিন্ন স্টাইলে অপহরণ করা হয়েছে। পুলিশ পরিচয়ে অপহরণ না করে সর্বহারা পরিচয়ে অপহরণ করা হয়েছে উক্ত জসিমকে। মুক্তিপণ হিসেবে অপহরণকারীরা জসিমের পরিবারের কাছে ৭০ লাখ টাকা ও ২০ ভরি সোনা দাবি করেছে বলে জানা যায়। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবারে, আর শনিবার সকালে মোবাইলে এই মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছে।

অপহৃত জসিমের বাবা খলিলুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেছেন, গত বুধবার সকাল ৯টার দিকে মো: জসিম উদ্দিন তুরাগের ধউর এলাকার নিজ বাসা থেকে হোটেলে যাওয়ার উদ্দেশে বের হলেও সে হোটেলে যায়নি। পরে দুপুরের দিকে হোটেলের ম্যানেজার তৌহিদ মোবাইলে জানায়, জসিম এখনও হোটেলে পৌঁছায়নি। এরপর থেকে ব্যবসায়ী জসিমের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ রয়েছে। এ বিষয়ে পরদিন বৃহস্পতিবার রাতে তুরাগ থানায় মামলা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার মুক্তিপণ হিসেবে ৭০ লাখ টাকা ছাড়াও ২০ ভরি সোনা দাবি করা হয়েছে বলে জসিমের বাবা জানিয়েছেন। এই মুক্তিপণের টাকা সময় মতো না পেলে জসিমকে খুন করা হবে বলে শাসিয়েছে অপহরণকারীরা।

মোবাইল কললিস্ট ও ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে অপহরণকারী দলের সদস্যদের স্থান শনাক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে তুরাগ থানা সূত্রে জানানো হয়েছে। জসিমকে জীবিত উদ্ধারসহ অপহরণকারীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ, ডিবি এবং র‌্যাব একযোগে করা করছে বলে জানা গেছে।

নারায়নগঞ্জ থেকে অপহরণের ঘটনা এখন ক্রমেই ধেয়ে আসছে রাজধানী ঢাকার দিকে। এখন সকলকে আরও সতর্ক হতে হবে। ইতিমধ্যেই গাড়ির কালো গ্লাস নিষিদ্ধ এবং সাদা পোশাকে আসামীদের না ধরার বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কেও যাতে সাদা পোশাকের কথা বলে পুলিশ পরিচয়ে কাওকে অপহরণ করতে না পারে সেদিকে সকলের সজাগ থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

একের পর এক অপহরণের ঘটনা ঘটছে। কিন্তু প্রকৃত অপরাধীরা সব সময় ধরাছোঁয়ার বাইরেই থেকে যায়। সে কারণে বার বার ঘটছে এমন ঘটনা। অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করতে পারলে আর কেও সাহস পেতো না এমন ঘটনা ঘটানোর।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx