The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

লিওনেল মেসি: আমি শিশু হত্যাকারী ইসরায়েলের বিরুদ্ধে

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ গাজায় বোমা হামলা চালিয়ে যে ইসরায়েল নির্বিচারে শিশুদের হত্যা করছে, তাদের নাকি মেসি সমর্থন দিচ্ছেন! আসলেই কি তাই? এবার মেসি নিজেই জানালেন আমি শিশুদের ভালোবাসি। শিশু হত্যাকারীদের পক্ষে আমি কখনোই নেই।

ooredoo-leo-messi-children_result

মেসির বিরুদ্ধে সম্প্রতি অভিযোগ, তিনি নাকি ইসরায়েলকে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য অস্ত্র কেনার টাকা দিয়েছেন। মেসির এই দানের পরিমাণ নাকি প্রায় ১০ লাখ ইউরো!

এমন অভিযোগ যখন মেসির নামে, মেসি তখন জানালেন তিনি শিশু হত্যাকারীদের পক্ষে নেই। শিশুদের ভালোবাসেন লিওনেল মেসি। ফুটবলের বাইরে যা কিছু করেন, তার অনেকটাজুড়েই থাকে শিশুরা। বিশ্বজুড়ে শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ২০১০ সাল থেকে।

মেসির বুরুদ্ধে আসা খবরটি পুরোই অসত্য। আর ইন্টারনেটে সেটা চাউর হয়ে যাওয়ার পর দৃঢ় কণ্ঠে প্রতিবাদ জানিয়েছেন এ সময়ের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার। অর্থ সাহায্য দেওয়া তো দূরের কথা, উল্টো ইসরায়েলের বিরুদ্ধেই কথা বলেছেন মেসি। আর্জেন্টাইন এই তারকার ভাষায়, ‘যারা শিশু হত্যা করে তাদের আপনি কোনো সাহায্য করতে পারেন না।’

কিছুদিন আগে ব্যাপারটা শুরু হয়েছিল ইন্টারনেটে একটা ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়ার ফলে। আলজেরিয়ার একটি ব্যঙ্গাত্মক ওয়েবসাইটকে উদ্ধৃত করে ইরানের একটি গণমাধ্যম রিপোর্ট করেছিল, মেসি ইসরায়েলকে ১০ লাখ ইউরো সহায়তা দিয়েছেন। খবরটির কোনো সত্যতা না থাকলেও ইন্টারনেটে এটি ছড়িয়ে পড়েছিল ঝড়ের বেগে।

উল্লেখ্য, বিশ্বকাপের পর ১০ লাখ ইউরো মেসি দান করেছেন আর্জেন্টিনার দুস্থ শিশুদের জন্য স্কুল ও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যে। মেসির কর্মকাণ্ড এবং জীবন যাপন সব কিছু বরং শিশু হত্যাকারীদের বিরুদ্ধেই। তিনি নিশ্চিত করেছেন তিনি শিশু হত্যাকারী ইসরায়েলের বিরুদ্ধেই আছেন তিনি। এই খবরের পর মেসি ভক্তরা কিছুটা নিশ্চিন্ত হতেই পারেন।

সূত্র- মরক্কো ওয়ার্ল্ড নিউজ

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx