The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

তোরাজা: যেখানে মৃতদের কবর দেয়া হয়না

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ শুনতে অবাক লাগলেও এটিই বাস্তবতা যে ইন্দোনেশিয়ার দক্ষিণ সুলাওয়েসির তোরাজা গ্রামের রীতি অনুযায়ী একজন মৃতকে কবর দেয়া হয়না এবং রেখে দেয়া হয় নিজেদের সাথেই বিশেষ কফিনে। একটি নির্দিষ্ট দিনে এই মৃতদের কফিন থেকে বাহির করে পড়ানো হয় নতুন পোশাক।


desktop-1415298167_result

প্রতিবছর পরিবারের যেসব সদস্য মারা যায় সবাইকেই তুলা হয় কফিন থেকে এবং মৃত স্বজনদের বিশেষ কফিন কিংবা মাটির গুহা থেকে তুলে মরদেহ পরিষ্কার করা বিশেষ প্রক্রিয়াতে। ইন্দোনেশিয়ার দক্ষিণ সুলাওয়েসির তোরাজা গ্রামের রীতি অনুযায়ী আঞ্চলিকভাবে এই অনুষ্ঠানটির নাম ‘মাইনেনে’ বা মরদেহ পরিষ্কারের অনুষ্ঠান। এই দিন স্থানীয়রা নিজ নিজ পূর্বপুরুষ কিংবা সদ্য মারা যাওয়া আত্মীয়দের কফিন থেকে বাইরে আনে। বিশেষ সুগন্ধি দিয়ে তাদের পড়ানো হয় নতুন পোশাক।

desktop-1415298163_result

পরে বিশেষ স্থানে দাড় করানো হয় একে একে। পরিবারের সকল সদস্য অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে নতুন পোশাক এবং ভালো খাবারের আয়োজন করে। এছারা মৃতদের জন্যও কেনা হয় নতুন নতুন পোশাক। নতুন পোশাক পড়িয়ে কেউ কেউ আবার মৃতদের হাটিয়ে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে নিয়ে যান। তাদের গ্রাম ঘুরিয়ে দেখানো হয়।

desktop-1415298170_result

তোরাজা গ্রামের মানুষরা মনে করেন মৃত্যুর পর কবর না দিয়ে নিজদের পূর্বপুরুষের মৃত দেহ রেখে দিয়ে নির্দিষ্ট সময় পর তা তুলে দেখা পরিবারের জন্যই ভালো। এছারা এতে করে পরবর্তী প্রজন্ম নিজেদের পূর্বপুরুষ সম্পর্কে ধারণা পায়। তা ছাড়া তাদের অদ্ভুত রীতি আছে, মৃত ব্যক্তি যে শহরে জন্মেছেন সেই শহরেই বা গ্রামে তাকে সমাহিত করতে হবে। তাই অনেক ক্ষেত্রে এক গ্রামে জন্মনেয়া মৃত ব্যক্তিকে মৃত্যুর পরে হাটিয়েই নিয়ে যাওয়া হয় তার জন্ম স্থানে!

শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই রীতি ইন্দোনেশিয়ার দক্ষিণ সুলাওয়েসির তোরাজা গ্রামের। এমনি অসংখ্য ধর্ম, রীতি, নীতি রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। এমন আরো অনেক অদ্ভুত রীতি জানতে দি ঢাকা টাইমসের সাথেই থাকুন।

সূত্র- viralnova

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...