বিমানের ৩৩,৩৩০ ফুট উপর হতে পড়েও জীবিত!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এমন একটি খবর শুনে যে কেও বিস্মিত হবেন সেটিই স্বাভাবিক। তবে ঘটনাটি সত্যি। এক বিমান দুর্ঘটনায় ৩৩,৩৩০ ফুট উপর হতে পড়েও বেঁচে যান এক ব্যক্তি!

33.330 feet fall

সেই ১৯৭২ সালের ২৬ জানুয়ারির ঘটনা। সেদিন ঘটেছিল এক ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনায় ডনেল ডগলাস ডি সি-৯-৩২ বিমানটি ৩৩,৩৩০ ফুট উপর হতে বিধ্বস্ত হয়ে বিমানটি নীচে পড়ে যায়। ওই দুর্ঘটনায় বিমানে থাকা ২৭ জন মারা যান। তবে একমাত্র বেঁচে যান ভুলোভিচ নামে এক ব্যক্তি!

বেঁচে যাওয়া সার্বিয়ার ভেসনা ভুলোভিচ ২৩ বছর ধরে চাকরি করেন বিমানকর্মী হিসেবে। সেদিন ডনেল ডগলাস ডি সি-৯-৩২ বিমানটিতে ডিউটি ছিল অন্য একজন যুবতীর। যার নামও ছিল ভেসনার নামের সঙ্গে পুরোপুরি মিল- ‘ভেসনা’। তবে ভুল করে ভেসনা ভুলোভিচই কাজে যোগ দেন ওই বিমানে।

কিন্তু কাজে যোগ দিয়েই ভেসনা ভুলোভিচের জীবনে ঘটে গেলো এক অবিস্মরণীয় ঘটনা।

আকাশ হতে ৩৩,৩৩০ ফুট নীচে পড়েও অবিশ্বাস্যভাবেই প্রাণে বেঁচে যাওয়া ভেসনা ভুলোভিচকে উদ্ধার করেন ব্রুনো হেঙ্কে।

ব্রুনো হেঙ্কে বলেন, ‘ভুলোভিচ ছিলেন ভেঙে যাওয়া বিমানের ঠিক মাঝামাঝি অংশে। উইংয়ের ঠিক ওপরে। তার দেহটি ছিল আরেকটি মৃতদেহের ঠিক নীচে। এমন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।’

তাকে উদ্ধারের পর ১৬ মাস কেটেছিল হাসপাতালে। তারমধ্যে ২৭ দিন কোমায় আচ্ছন্ন ছিলেন তিনি। প্রায় জীবন-মৃত্যুর অবস্থা হতে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠেন তিনি।

ভুলোভিচ সুস্থ হওয়ার পর পুনরায় যোগ দেন সেই বিমান কোম্পানিতে। প্রথমদিকে ডেস্কে বসে কাজ করেন কিছুদিন। তারপর আবার ওড়া শুরু করেন ভুলোভিচ। তিনি বলেছেন, তার উড়তে বেশ ভালোই লাগে!

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...