মানুষকে ডুবে যাওয়া থেকে উদ্ধার করবে রোবট!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ উপকূল অঞ্চলে নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগ লেগেই থাকে। আর এই প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে উদ্ধার কাজে লঞ্চ, স্টিমার কিংবা কখনও কখনও হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হয়। আবার প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় হেলিকপ্টারও ব্যবহার করা যায় না। কিন্তু এবার প্রাকৃতিক দুর্যোগের বা যে কোন সময় উদ্ধার কাজে ব্যবহার করা হবে রোবট। এই রোবটটি দুর্যোগের সময় পানি থেকে মানুষকে ডুবে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষার জন্য উড়ে গিয়ে বয়া ফেলে দেবে। খবর দ্য টেকজার্নাল।
Pars-1

বিজ্ঞানীরা ইতিপূর্বে এমিলি নামের একটি রোবট আবিষ্কার করেছিল। যে রোবট পানির মধ্যে ভেসে থেকে উদ্ধার কাজে আসতো। কিন্তু এবার তারা আরও একধাপ এগিয়ে মানুষকে উদ্ধারে উড়ে গিয়ে বয়া ফেলে মানুষকে ভেসে থাকতে সাহায্য করবে।
Pars-2
বলা হয়েছে, শুধু প্রাকৃতিক দুর্যোগেই নয়, এটি সমুদ্রে বিমান হামলার মতো পরিস্থিতিতেও মানুষকে সাহায্য করতে পারবে। নেভিগেশন সরঞ্জাম, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, শব্দ ও ইমেজ প্রসেসিং, স্বনির্দেশকারী অনুসন্ধান ও উদ্ধার এবং ব্যারোমিটার ও কম্পাস এবং বিভিন্ন সেন্সরসহ এটিকে সজ্জিত করা হয়েছে। এই রোবট সমুদ্রে একটি বাতিঘর হিসেবেও কাজ করে। যাতে জেলেসহ সাধারণ মানুষ উপকৃত হয়। তাছাড়া এখানে রয়েছে তাপীয় ক্যামেরা। তাছাড়াও এতে রয়েছে নিজস্ব সমুদ্র প্ল্যাটফর্ম এবং একাধিক চার্জার যা সৌর প্যানেল বিশিষ্ট। এই রোবট নিয়ন্ত্রণের জন্য উপগ্রহ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। উপগ্রহের মাধ্যমে তথ্য আদান-প্রদান করা যাবে বলে জানানো হয়েছে।
Pars-5
এই রোবটটি মূলত শব্দের উপর ভিত্তি করে কাজ করে থাকে। মানুষ বিপদে পড়লে উদ্ধারের জন্য যখনই শব্দ করবে তখনই অতি দ্রুত জায়গা শনাক্ত করে এই রোবটটি কাজ শুরু করবে। পানিতে ডুবে যাওয়া ব্যক্তিকে উদ্ধারের জন্য দ্রুত বয়া ফেলে সাহায্য করবে এই রোবট। বর্তমানে এই রোবটটি ৩টি বয়া ফেলে ৩ জনকে একসঙ্গে সাহায্য করতে পারবে। ভবিষ্যতে এটি একই সঙ্গে ১৫ জনকে সাহায্য করতে পারবে বলে গবেষকরা জানিয়েছেন।
Pars-4

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...