টুইটারের কারণে তিন শিশু মায়ের কোলে ফিরে গেলো!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দিল্লির ব্যস্ততম রেল স্টেশনে ফেলে যাওয়া তিন শিশুকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিলো টুইটার। ওই শিশুদের বাবা তাদের সেখানে ফেলে যায়।

Three children & Twitter

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দিল্লির ব্যস্ততম রেল স্টেশনে তিনটি বাচ্চাকে ফেলে যায় বাবা। পরে এদেরকে মায়ের কাছে পৌঁছে দেয় টুইটার। ৭ বছর বয়সী রুমানা, ৫ বছর বয়সী রাজা ও ৪ বছরের সানিয়ার দূরাবস্থার কথা মানুষজন তুলে ধরেন টুইটারে। আর সে কারণেই শেষ পর্যন্ত তাদের মায়ের কাছে ফেরা সম্ভব হলো।

তাদের জন্যে কোনো ব্যবস্থা নিতে টুইটারে শত শত মানুষ সমর্থন দিলেন। পুলিশ টানা আধা ঘণ্টা ধরে রেলওয়ে স্টেশন চষে বেড়ালেন। এক সময় খুঁজে পেলো তাদের মাকে। তারা ফিরে গেলো তাদের মায়ের কাছে বাড়িতে।

এই শুভ কাজের শুরুটা করেন শুকলা নামের এক সাংবাদিক। মেঝেতে বসে থাকা ওই তিন বাচ্চার একটি ছবি তিনি তুলে দেন তার টুইটার একাউন্টে। ছবির নীচে লিখলেন, কেও কি নিউ দিল্লি রেলওয়ে স্টেশনের ১৬ নম্বর প্লাটফর্মের কাছে পড়ে থাকা এই তিন শিশুকে সাহায্য করতে পারেন?’ আবার ওই সাংবাদিক পুলিশকেও জানান ঘটনাটি।

ওই সাংবাদিকের এই পোস্ট দুই শো বারেরও বেশি শেয়ার হয়। টুইটারের মাধ্যমে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরও জানান অনেকেই। ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেেশে অবশেষে অভিযান শুরু করে পুলিশ। ছবিতে দেখানো যেখানে বসেছিল তারা- সেখানে তাদের আর পাওয়া যায়নি। শেষ পর্যন্ত যখন পাওয়া গেলো- তখন তারা রীতিমতো বিধ্বস্ত। পুলিশ দেখে দারুণভাবে ভয় পেয়ে যায় তারা। পরে পুলিশ তাদের নিরাপত্তা দেয়, খাবার দেয় ও জানতে পারে যে, তাদের বাবা এখানে রেখে যান। যাওয়ার সময় বলে যান, তোমাদের মা না আসা পর্যন্ত এখানেই থাকো। পরে তারা শিশুদের কাছ হতে বর্ণনা শুনে নবি করিম ডিস্ট্রিক্টে তাদের বাড়িতে নিয়ে যান। তুলে দেন তাদের মায়ের কাছে। এভাবেই তিনটি শিশু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বদৌলতে ফিরে যায় তার মায়ের কাছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...