The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধে প্রাণ গেছে ১৩ লাখ!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ যুদ্ধের দামামা মানুষকে কোথায় নিয়ে যায় তা না দেখলে কেও বিশ্বাস করতে পারে না। একমাত্র যুক্তরাষ্ট্রেই যুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ১৩ লাখ!

United States &  war

যুদ্ধের দামামা সারাবিশ্বেই ছড়িয়ে রয়েছে। এমন কোনো দিন নেই যে যুদ্ধে প্রাণ হারানোর খবর নেই। কোনো না কোনো দেশে যুদ্ধে প্রাণ হারানোর খবর আমরা সংবাদ মাধ্যম খুললেই দেখতে পায়। শুধুমাত্র ইরাক, আফগানিস্তান এবং পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন এক দশকে সন্ত্রাসবাদবিরোধী যুদ্ধে প্রত্যক্ষ অথবা পরোক্ষভাবে অন্তত ১৩ লাখ মানুষ নিহত হয়েছে।

সম্প্রতি বার্তা সংস্থা পিটিআই এর এক খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সন্ত্রাসবাদবিরোধী যুদ্ধে হতাহতের পরিসংখ্যান বিষয়ে সম্প্রতি এক প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

‘দেহ গণনা: সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধে ১০ বছর পর হতাহতের সংখ্যা’ শীর্ষক ওই গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়েছে। এটি করেছে চিকিৎসকদের কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংগঠন। ওই সংগঠনগুলো হচ্ছে- ইন্টারন্যাশনাল ফিজিশিয়ানস ফর দ্য প্রিভেনশন অব নিউক্লিয়ার ওয়্যার, ফিজিশিয়ানস ফর সোশ্যাল রেসপনসিবিলিটি এবং ফিজিশিয়ানস ফর গ্লোবাল সারভাইভাল। গবেষণা প্রতিবেদনে ২০০৪ সাল হতে ২০১৩ সাল পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সন্ত্রাসবাদবিরোধী যুদ্ধে হতাহতের সংখ্যা অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, এই সময়ে ইরাক, আফগানিস্তান এবং পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধে প্রায় ১৩ লাখ মানুষ প্রত্যক্ষ অথবা পরোক্ষভাবে নিহত হয়। এদেরমধ্যে শুধুমাত্র ইরাকেই নিহত হয়েছে ১০ লাখ মানুষ। আফগানিস্তানে ২ লাখ ২০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। পাকিস্তানে নিহত হয়েছে প্রায় ৮১ হাজার মানুষ।

ওই প্রতিবেদনের তথ্যমতে, একমাত্র পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন এক দশকের সন্ত্রাসবাদবিরোধী যুদ্ধে অন্তত ৮১ হাজারের উপরে নিহত হয়েছে। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে ৪৮ হাজার ৫০৪ জনই বেসামরিক নাগরিক। ৫ হাজার ৪৯৮ জন পাকিস্তানী নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য। এছাড়াও ২৬ হাজার ৮৬২ জন জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে ওই প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...