মোটার রেকর্ড গড়তে বাবুর্চিকে বিয়ে করলেন এক নারী!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অনেকেই মোটা কমানোর চেষ্টা করেন। কারণ মোটা হওয়ায় শারীরিক নানা সমস্যা দেখা দেয়। অথচ মোটার রেকর্ড গড়ার জন্য বাবুর্চিকে বিয়ে করলেন এক নারী!

For record & married

মানুষের কতো রকম শখ থাকতে পারে তার শেষ নেই। কিন্তু তাই বলে মোটা হওয়ার রেকর্ড গড়ার জন্য এমন সিদ্ধান্ত! গিনেজ বুকে নাম লেখানোর জন্য তিনি বড়ই উদগ্রিব। আর তাই তাকে দ্রুত মোটা হতে হবে। আর দ্রুত মোটা হতে হলে দরকার খাওয়ার বাহার। তাই তিনি সিদ্ধান্ত নিলেন একজন বাবুর্চিকে তিনি বিয়ে করলেন।

For record & married-2

যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ৩৪২ কেজি ওজনের বিশালদেহী সুসানি ইমানের বয়স ৩৩। বর্তমানে তার জীবনের একটাই লক্ষ্য, আর তা হলো পৃথিবীর সবচেয়ে মোটা মানুষ হওয়ার কীর্তিটি নিজের আয়ত্তে আনা। সেজন্য তাকে নিজের ওজন নিয়ে যেতে হবে অন্তত ৭৩০ কেজিতে। দুরুহ এ কাজটির লক্ষ্যে পৌঁছাতে তাই তিনি অভিনব এক পরিকল্পনা করলেন ভালোবেসে বিয়ে করবেন এমন একজনকে যার পেশাই হলো রান্না করা। সুসানির সেই ভালোবাসার মানুষটির নাম হলো পার্কার ক্লার্ক। পরে তারা পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হন।

For record & married-3

বিলম্বে প্রাপ্ত এক তথ্যে জানা যায়, ইন্টারনেটে পরিচয়ের সুবাদে ই-মেইল চালাচালির মাধ্যমেই দু’জনের মধ্যে সখ্যতা গড়ে উঠে। এর ঠিক মাসখানেক পর পার্কার চলে আসেন অ্যারিজোনায় সুসানির বাসায়। থাকতে শুরু করেন তার দুই ছেলে ব্রেনডিন এবং গ্যাব্রিয়েলের সঙ্গে। নিজেদের এই অদ্ভুত জুটি নিয়ে নানা রকম রসাত্মক মন্তব্য করলেও সুসানি তার সিদ্ধান্তে অবিচল। পরে তাদের বিয়ে হয়।

সুসানি বলেছেন, ‘আমার ও পার্কারের জুটি এক অনন্য জুটি। পার্কার ভালোবাসে রাঁধতে আর আমি ভালোবাসি খেতে। আমি এখন পৃথিবীর সবচেয়ে মোটা নারী হয়ে রেকর্ড গড়তে চাই। আমার এই লক্ষ্যে পার্কার আমাকে অনুপ্রেরণা যুগিয়ে যাচ্ছে সবসময়।’ পার্কার সম্পর্কে সুসানি আরও বলেছেন, ‘পার্কার মোটা মেয়েদের পছন্দ করে ও দেখতেও ভালোবাসে, তার রান্না খেয়ে আমিও খুশি হই।’

শেষ পর্যন্ত তার ইচ্ছা পূরণ হয়েছি কিনা তা অবশ্য আমাদের জানা নেই।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...