বিষধর সাপ যখন প্রিয় বন্ধু!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সাপের কথা শুনলে আমরা ভয়ে কেঁপে উঠি। সেই বিষধর সাপ আবার কখনও কোনো মানুষের বন্ধুও হতে পারে। এমনই এক শিশুকে পাওয়া গেছে যে সব সময় সাপের সঙ্গেই বসবাস করে।

Dear friends, when poisonous snakes

ঘটনাটি ভারতের উত্তর প্রদেশ হতে ১৫ কিলোমিটার দূরে ঘাটমপুরে। সেখানকার এক বস্তিতে বসবাস করে নাজনীন নামের একটি মেয়ে শিশু, তার বয়স হবে ১০। সে ২৪ ঘণ্টা বিষধর সাপের সঙ্গে বসবাস করে।

নাজনীন তার প্রতিক্রিয়ায় সংবাদ মাধ্যমকে বলেছে, ‘এই সাপগুলো হচ্ছে আমার প্রিয় বন্ধু। আমি তাদের সঙ্গে ঘুমাই, তাদের সঙ্গে সময় কাটাই। এমনকি আমি তাদের সঙ্গে একসঙ্গে খাবার খাই।’

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, নাজনীনের বয়স যখন ২ বছর, তখনই আশপাশের মানুষ তাকে নাগকন্যা হিসাবে ডাকতো। কারণ নাজনীন খাবার-দাবার, খেলা করা এমনকি ঘুমানো পর্যন্ত তখন থেকেই সাপের সঙ্গে করতো।

সাপের সঙ্গে কথা বলা, তাদেরকে গান শোনানো এবং তাদের সঙ্গে খেলা করার জন্য নাজনীন স্কুলে যায় না। সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে যখন নাজনীন ঘুমায় তখন সাপগুলো নাজনীনকে পাহারা দেয়।

নাজনীনের বাবা বলেছেন, জন্মের পরে নাজনীন যখন বুঝতে পারে তখন থেকেই সাপই হচ্ছে তার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু। অন্য কোনো কিছুর প্রতি তার কোনো আকর্ষণ নেই। সে সারাক্ষণ সাপের সঙ্গে খেলা করে। আমরা অনেক চেষ্টা করেছি তাকে সাপ থেকে পৃথক করার জন্য। আমাদের এতো চেষ্টায় কোনো ফল হয়নি। সাপের সঙ্গে থাকতে তার কোনো ভয় তো দূরের কথা, আনন্দের সঙ্গে সময় কাটে তার। তাই নাজনীনকে কেও সাপের কন্যা, আবার কেও সাপের দেবীও বলে থাকে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...