অভিমান করে ইন্টারনেট ক্যাফেতে ১০ বছর!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এক তরুণী অভিমান করে ইন্টারনেট ক্যাফেতে কাটিয়ে দিলেন ১০ বছর! জিয়াও ইয়ুন নামে ওই মেয়েটি গত এক দশক ধরে একটি ইন্টারনেট ক্যাফেতে বসবাস করছিল।

Huff Internet cafe 10 years

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, জিয়াও ইয়ুনের বাবা-মা ধরেই নিয়েছিলেন যে, তাদের মেয়ে হয়তো মারা গিয়েছে। একমাত্র মেয়েটি ১০ বছর আগে বাড়ি হতে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। গত সপ্তাহেই চীনা পুলিশ ২৪ বয়সী ওই তরুণীকে সুস্থ সবল অবস্থায় খুঁজে পায়। মেয়েটি গত এক দশক ধরে একটি ইন্টারনেট ক্যাফেতে বসবাস করে আসছিল।

স্টার অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই তরুণী ১৪ বছর বয়সে বাবা-মার সঙ্গে ঝগড়া করে বাড়ি হতে পালিয়ে যায়। তখন থেকেই সে ইন্টারনেট ক্যাফেতে দিনাতিপাত করতো এবং ‘ক্রস ফায়ার’ গেমস খেলে সময় কাটাতো।

পুলিশ অনুসন্ধান করে জানতে পারে, জিয়াও ইয়ুন ইন্টারনেটে ওই ক্যাফেতে ঢোকার জন্য ভুয়া আইডি কার্ড ব্যবহার করতো। ব্যাপারটি দৃষ্টিগোচর হলে পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে আসে। সে স্বীকার করে যে, সে এসব করবে না কিন্তু সে অন্য ক্যাফেতে বসবাস করতো। কখনওবা টাকা রোজগার করার জন্য হিসাব রক্ষকের চাকরিও করেছে ওই তরুণী।

কিছুটা আপত্তির পর শেষ পর্যন্ত জিয়াও ইয়ুন তার বাবা-মায়ের সঙ্গে দেখা করতে সম্মত হন। মেয়ে ফোন করবে এই আশায় ইয়ুনের বাবা-মা নিজেদের ফোন নম্বর পর্যন্ত কোনোদিন পরিবর্তন করেননি।

ইয়ুনের মা কিয়ানজিং সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমি একটু একগুঁয়ে ও বদমেজাজী। তাই আমি তাকে সত্যিই বকাঝকা করতাম। এখন প্রায় ১০ বছর পার হয়েছে, সেও বড় হয়ে গেছে। আমি আর কখনই তাকে বকাঝকা করবো না কথা দিচ্ছি।’ তার মেয়েকে পেয়ে মা-বাবা ফিরে পেয়ে এখন খুব খুশি।

Advertisements
Loading...