যে গ্রামের মেয়েদের বিয়ে ভেঙ্গে দেয় বানর!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এমনও গ্রাম রয়েছে যে গ্রামের মেয়েদের বিয়ে ভেঙ্গে দেয় বানর! এমন ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বিহার রাজ্যের রতনপুর গ্রামে।

women & village monkey

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, ওই রাজ্যটির রাজধানী পাটনা হতে প্রায় ৭৫ কিলোমিটার দূরের ভোজপুর জেলার গ্রামে মেয়েদের বিয়ে নাকি ভেঙ্গে দিচ্ছে বানররা!

ওই গ্রামে যখনই বরযাত্রী ঢোকে, কিছুদূর এগোতে না এগোতেই কুপোকাত! কারণ তখন পড়িমরি করে নিজের প্রাণ বাঁচিয়ে পালায় আগত বরযাত্রীরা। বেশ কয়েকটি এমন ঘটনা ঘটেছে। বানরের আক্রমণে নাকি এমন অবস্থা হচ্ছে। তাই ওই গ্রামে ভয়ে কেও আর বিয়ে করতে যেতেও রাজি হচ্ছে না। শেষমেষ বিপদে পড়েছেন রতনপুরের মেয়েদের মা-বাবারা।

শুনে যে কেও বিস্মিত হতে পারেন। কারণ হলো, কোনও ডাকাত বা দুষ্কৃতী দল নয়। এমন কাণ্ড ঘটায় এক দল বানর। রতনপুরের বাসিন্দারা এমন কথায় বলেছেন।

কিছুদিন আগের এক ঘটনা। পাত্রপক্ষ আত্মীয়-স্বজনদের নিয়ে রতনপুরে বিয়ে করতে আসছিলেন। ব্যান্ডের বাজনার তালে তালে তখন সবাই যেনো নাচে মশগুল। ওই গ্রামেন রাস্তা ধরে কিছুদূর এগোতেই বানরের দলটি ঘিরে ধরে তাদের। প্রথমে কেও তোয়াক্কাই করেননি। লাঠি-ইট নিয়ে তাড়ােেনার চেষ্টা করা হলো। কিন্তু বানররাও যে কম যায় না, সেটা তারা হাড়ে হাড়ে টের পান কিছুক্ষণের মধ্যেই।

সেখানে আরও বানর এসে পাল্টা আক্রমণ করে বসে বরযাত্রীদের। তাদের উপর হামলা চালায়। অনেকেকই কামড়ে, আঁচড়ে, টেনে ফেলে দেয় তারা। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে বাকি সবাই পগারপার। এই হামলাকারীদের হাত হতে বাঁচতে অবশেষে রাতের অন্ধকারে গা ঢাকা দেন বরযাত্রীরা।

আনন্দবাজার পত্রিকায় বলা হয়েছে, এমন ধরনের ঘটনা একের পর এক ঘটতে থাকার কারণে চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন রতনপুরের বাসিন্দারাও। ইতিমধ্যেই এইসব হামলাকারীদের কাহিনী বহুদূর রটে যাওয়ায়, পাত্ররাও ওই গ্রামে বিয়ে করতে রাজি হচ্ছেন না।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...