আপনার স্মার্টফোনটি গরম হলে কী করবেন? জেনে নিন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমাদের স্মার্টফোনটি মাঝে মধ্যেই বেশ গরম হয়ে যায়। আর গরম হওয়া মোটেও ভালো লক্ষণ নয়। আপনার স্মার্টফোনটি গরম হলে কী করবেন? আজ জেনে নিন।

What to do if your smartphone is hot-

অনেক সময় দেখা যায় যে, বেশিক্ষণ কথা বললে মোবাইলটি গরম হয়ে যায়। তবে খুব কম সময় কথা বললেও যখন আপনার ফোনটি গরম হবে তখন বুঝতে হবে সমস্যা রয়েছে। তবে নানা লোকের এই ফোন গরম হয়ে যাওয়ার নানা রকম ব্যাখ্যা রয়েছে। কেও বলেন একটানা বেশিক্ষণ ফোন ব্যবহার করার জন্য, আবার কেও বলেন বেশিক্ষণ চার্য দেওয়ার জন্যও এমন হতে পারে। তবে ঠিক কী কারণে গরম হয় স্মার্টফোন? সেটিই খুঁজে বের করে তার সমাধান করতে হবে।

What to do if your smartphone is hot-2

ব্যাটারি:

দিন যতো গড়াচ্ছে ততোই স্লিম হচ্ছে স্মার্টফোন। তবে সেই তুলনায় উন্নত হচ্ছে না ব্যাটারি। যে কারণে ফোন চার্জ দেওয়ার সময় কিংবা একটানা ব্যবহার করা হলে বেশি গরম হয়ে যাচ্ছে ব্যাটারি। সেই উষ্ণতা ছড়িয়ে পড়ছে ফোন বডিতেও।

কখন বুঝবেন ফোন বেশি গরম হচ্ছে:

কম-বেশি প্রায় সব স্মার্টফোনই গরম হয়। তবে গরম হওয়া মানেই বিপদ নয়। স্বাভাবিকভাবে সব ফোনই কাজ করার সময় ৩৫/৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস গরম হয়ে যায়। যদি স্ট্যান্ড বাই মোডেও ফোন এইরকম গরম হতে থাকে, তাহলে বুঝতে হবে ফোনে কিছু সমস্যা রয়েছে।

প্রসেসর:

একটি মোবাইল ফোনের প্রসেসর হলো ‘হার্ট’। মানুষের বেঁচে থাকার জন্য যেমন সবসময় হৃতপিণ্ড সচল থাকা প্রয়োজন, ঠিক তেমনি স্মার্টফোন চালু রাখতে সবসময় চলতে থাকে তার প্রসেসর। প্রসেসর চলাকালীন তার ভেতরের ইলেক্ট্রনগুলোয় তাপ উৎপন্ন হয়ে থাকে। ফোন ব্যবহার না করলে সেই তাপ অনেক কম হয়, তবে ফোন ব্যবহার করলে সেই তাপ বেশি উৎপন্ন হয়। তখন ফোন বডিতে গরম অনুভূত হয়। তাপ বেশি তৈরি হয়ে থাকে একটানা ডাউনলোড করলে।

খারাপ নেটওয়ার্ক:

স্মার্টফোন অর্থই হলো প্রচুর পরিমাণে ইন্টারনেটের ব্যবহার। তবে এই ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় সব জায়গায় সমানভাবে সিগন্যাল পাওয়া যায় না। যেখানে সিগন্যাল দুর্বল হয়, সেখানে ফোনকে নেটওয়ার্ক পেতে বেশি কসরত করতে হয়। যে কারণে খুব সহজেই ফোন গরম হয়ে যায়।

মুক্তির উপায়:

আপনার মোবাইল ফোনটি গরম হচ্ছে মানেই আর সেটি ব্যবহার করা যাবে না এমনটি নয়। ফোন যাতে করে গরম না হয় সেই উপায়টা খুঁজে বের করতে হবে।

আপনাকে যা করতে হবে:

প্রথমত: নিয়মিত অ্যাপস আপডেট করতে হবে। কারণ বেশি পুরনো ভার্সন ব্যবহার করলে সেটি ফোনে উত্তাপ বাড়াতে পারে।

দ্বিতীয়ত: আমরা বেশির ভাগ সময়ই খেয়াল করি না ব্যাগগ্রাউণ্ডে কোনও অ্যাপলিকেশন চলছে কিনা। সবসময় ব্যাগগ্রাউণ্ডের অ্যাপলিকেশন বন্ধ রাখতে হবে।

তৃতীয়ত: আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে, যাতে ডাউনলোডের সময় ফোনে পর্যাপ্ত চার্জ থাকে। কারণ হলো, কম চার্জে ডাউনলোড করলে ব্যাটারির ওপর বেশি চাপ পড়ে। সেক্ষেত্রে মোবাইল গরম হয়ে যায়। আবার গরম শুষে নিতে পারে, এমন কভার লাগালেও অনেক সময় এই সমস্যা হতে মুক্তি পাওয়া যাবে। আর একটি বিষয় হলো, প্রয়োজন ছাড়া ওয়াই-ফাই ব্যবহার না করায় ভালো। কারণ ওয়াই-ফাই ব্যবহারের জন্যও মোবাইল ফোন গরম হতে পারে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...