মাদক পাচারের বিশাল এক সুড়ঙ্গের সন্ধান!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে মাদক পাচারে ব্যবহৃত হয় এমন এক বিশাল সুড়ঙ্গের সন্ধান মিলেছে। ৮শ’ মিটার দীর্ঘ ‘নজিরবিহীন ওই গোপন পথ’ দিয়ে কোকেন এবং গাঁজা পাচার করা হতো।

Drug smuggling tunnel discovered

বিবিসি অনলাইনের খবরে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, ২০০৬ সাল হতে মেক্সিকো-ক্যালিফোর্নিয়া সীমান্তে এটি নিয়ে ১৩তম গোপন সুড়ঙ্গের সন্ধান পাওয়া মিললো।

জানা গেছে, নতুন পাওয়া এই সুড়ঙ্গের গভীরতা প্রায় ৪৬ ফুট। এটা মেক্সিকোর সীমান্তবর্তী তাইজুয়ানা শহরের একটি বাড়ির লিফটের নিচের গর্তের সঙ্গে যুক্ত ছিল সন্ধান পাওয়া সুড়ঙ্গটি। যুক্তরাষ্ট্রের দিকে ওই সুড়ঙ্গের মুখ আবর্জনার একটি পাত্র দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছিল।

সম্প্রতি ক্যালিফোর্নিয়ার সান ডিয়েগোতে ১ হাজার ১৬ কেজি কোকেন এবং ৬ হাজার ৩৫০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় কর্মকর্তারা মনে করছেন, ওই সুড়ঙ্গ পথেই সেগুলো আনা হয়।

কর্মকর্তারা বলেছেন, পাচারকারীরা ময়লার পাত্রের ভেতর মাদক রাখতো এবং ময়লার পাত্র নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন জায়গায় তা সরবরাহ করতো। সম্প্রতি সান ডিয়েগোর নিরাপত্তা কর্মকর্তারা একটি ট্রাককে অনুসরণ করে। সেই ট্রাকটি আবর্জনার পাত্র নিয়ে যাচ্ছিল। এক সময় সান ডিয়েগোর কর্মকর্তারা ট্রাকটি থামিয়ে তল্লাশি করে। সেই ট্রাক হতে মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়। এসময় ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আরও গ্রেফতার করা হয় তিনজনকে। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই ওই সুড়ঙ্গের সন্ধান পাওয়া যায়। ওই সুড়ঙ্গের ভেতর বায়ু চলাচল এবং আলোর ব্যবস্থাও রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মার্চ মাসে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ মেক্সিকোর একটি রেস্টুরেন্ট হতে ক্যালিফোর্নিয়ার একটি বাড়ি পর্যন্ত ৩৮০ মিটার সুড়ঙ্গ খুঁজে পায়।

Advertisements
Loading...