প্যারিসে বন্যা : রেল যোগাযোগসহ বন্ধ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিগত ৩০ বছরের মধ্যে সিন নদীর পানি বিপদসীমার সবচেয়ে উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বন্যার পানি বৃদ্ধির কারণে তলিয়ে গেছে ফ্রান্সের প্যারিসে রেল যোগাযোগ।

Flooding in Paris- railways closed

স্বাভাবিকের চাইতে বন্যার পানি প্রায় ১৮ ফুট উঁচুতে উঠে পড়ায় ল্যুভর এবং মুজে দোর্সে বা ওর্সে জাদুঘর দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে। মূল্যবান প্রায় আড়াই লাখ নিদর্শন নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, মুষলধারে বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় সিন নদীর পানি গত সপ্তাহের তুলনায় আরও বেড়েছে। আবহাওয়া দপ্তর বলেছে, আরও কিছুদিন এই বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে। বন্যায় শুধু ফ্রান্স এবং জার্মানিও বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। দেশটির বেশ কিছু এলাকা ইতিমধ্যে পানিতে তলিয়ে গেছে। ফ্রান্সে বন্যার ভয়াবহতা বেশি হলেও প্রাণহানির দিক হতে জার্মানি এগিয়ে রয়েছে। এপর্যন্ত ফ্রান্সে ২ জন এবং জার্মানিতে ১০ জনের মৃত্যু ঘটেছে। ইউরোপের অন্যান্য দেশেও বন্যা ক্রমেই ছড়িয়ে পড়ছে।

রোমানিয়া, বেলজিয়াম, অস্ট্রিয়া, নেদারল্যান্ড, পোলান্ডেও বেশ কিছু এলাকা বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। রোমানিয়ার পূর্বাঞ্চলে বন্যায় মারা গেছে অন্তত ২ জন।

৩৫ বছরের মধ্যে প্রথম এমন অস্বাভাবিক প্রাকৃতিক দুর্যোগে নড়ে চড়ে বসেছে ফরাসি সরকার। সাম্প্রতিক বন্যাকে অস্বাভাবিক আখ্যা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাদ। সেইসঙ্গে জারি করেছেন বন্যা সতর্কতা। আশ্বাসও দিয়েছেন দুর্গতদের ক্ষতিপূরণের।

Advertisements
Loading...