বিতর্কিত মডেলের সঙ্গে সেলফি তোলার কারণে পাকিস্তানে মুফতি বরখাস্ত!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পাকিস্তানের সবচেয়ে বিতর্কিত মডেল কান্দিল বালুচের সঙ্গে বিতর্কিত সেলফি তোলার কারণে পাকিস্তানের এক মুফতিকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

Model, selfie and dismissed Mufti

পাকিস্তানের সবচেয়ে বিতর্কিত মডেলদের একজন হলেন কান্দিল বালুচে। তাকেই পাকিস্তানের কারদিশিয়ান বলা হয়ে থাকে। সম্প্রতি পাকিস্তানের উচ্চপদস্থ ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব মুফতি আব্দুল কাভির সঙ্গে কান্দিল বেলুচের ছবি এবং ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ায় ব্যাপক বিতর্কের পর তার পদ হতে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, দেশটির ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় বিতর্কিত আচরণের জন্য মুফতি কাভিকে কঠোরভাবে ধমকিয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় হতে জারি করা এক আদেশে মুফতি কাভিকে পাকিস্তানের জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি হতে ছাঁটাই করা করা হয়। মূলত এই কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশটিতে পবিত্র রমজান শুরু এবং শেষ হয়।

রক্ষণশীল মুসলিম দেশ হিসেবে খ্যাত পাকিস্তানের আবেদনময়ী কান্দিল একজন বিতর্কিত মডেল। গত সপ্তাহে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মুফতি কাভি এবং তার কিছু ছবি এবং ভিডিও প্রকাশিত হয়।

এতে কাভি ও কান্দিলের ঘনিষ্ঠতা চোখে পড়ে। ছবিতে মোবাইল ফোনে আলাপরত মুফতি কাভির সঙ্গে টুপি মাথায় উত্তেজক মুখভঙ্গিরত অবস্থায় কান্দিলকে দেখা যায়। এমন বিতর্কিত ছবি প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুফতি কাভিকে নিয়ে তুমুল সমালোচনা এবং উপহাস করা হয়।

এরপর মুফতি কাভিকে ইসলামের নামে কলংক আখ্যা দেন ওই মডেল কান্দিল। সিনিয়র এই আলেমকে অসংলগ্ন আচরণের জন্যও অভিযুক্ত করেন কান্দিল।

উল্লেখ্য, বিতর্কের মুখে মুফতি কাভিকে সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন রাজনৈতিক দল তেহরিকে ইনসাফ দল হতেও বহিষ্কার করা হয়েছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...