যুগান্তকারী উদ্ভাবন: এবার বর্জ্য থেকে উৎপাদিত হবে পেট্রোলিয়াম!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এক ‘যুগান্তকারী’ আবিষ্কার সকলকে চমকে দিয়েছে। এবার বর্জ্য থেকে উৎপাদিত হবে পেট্রোলিয়াম! এটি করেছেন ভারতের যুবক ভি এস সৃজিত।

petroleum from waste

ওই যুবকের আবিষ্কারটি চমকে দিয়েছে সকলকেই। বলা হয়েছে, কৃত্রিম উপায়েও উৎপাদন করা যাবে পেট্রোলিয়াম। প্লাস্টিকজাত বর্জ্য থেকেই উৎপাদিত হবে পেট্রোলিয়াম।

এর আবিষ্কারক সৃজিতের দাবি হলো, শুধু পেট্রোলিয়ামই নয়, এই পদ্ধতিতেই পরিশোধিত পেট্রোলও প্রস্তুত করা সম্ভব হবে। তা হতে তারপিন ও অন্যান্য পদার্থ প্রস্তুত করা সম্ভব। এই প্রক্রিয়ায় বর্জ্য হিসাবে যে কার্বন পাওয়া যাবে তা-ও পরিশোধন করার মাধ্যমে অন্যান্য কাজে ব্যবহার করা যাবে।

সাধারণতভাবে পেট্রোলিয়াম জাতীয় পদার্থ তৈরি হয় সামুদ্রিক জীবাশ্ম হতে। তবে এই কৃত্রিম উপায়ে প্লাস্টিক জাতীয় বর্জ্য পদার্থ হতে পরিবেশবান্ধব উপায়ে পরিশোধিত পেট্রোল ও পেট্রোলিয়ামজাত দ্রব্য প্রস্তুত করার পদ্ধতির প্রোটোটাইপ তৈরি করলেন আবিষ্কারক সৃজিত।

ভারতের কেরলের পেরিনজানাম পঞ্চায়েতে কোদুনগাল্লুর সায়েন্স সেন্টারের প্রাক্তন পরিচালক ভি এস সৃজিত বলেছেন, পেট্রোলিয়ামকে একটি নির্দিষ্ট মাত্রায় উত্তাপ দিলে সেটি হতে প্লাস্টিক উৎপন্ন হয়। ঠিক একইভাবে পলিমারাইজেশন প্রক্রিয়া ব্যবহার করে প্লাস্টিক হতে পেট্রল উৎপাদন করা সম্ভব। তিনি দাবি করে বলেছেন, এই পদ্ধতিতে মাত্র ১০ কেজি প্লাস্টিক হতে ৯.৬ লিটার পেট্রোলিয়াম প্রস্তুত করা সম্ভব।

সৃজিত বহুদিন থেকেই সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট নিয়ে কাজ করে আসছেন। সেইসঙ্গে ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়েও তিনি বৈজ্ঞানিক উপায়ে বর্জ্য পদার্থকে ভিন্নভাবে ব্যবহার করার প্রচেষ্টা চালাতেন।

এখন দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ড হতে অনুমতি পেলে এবং বিনামূল্যে বর্জ্য পাওয়া গেলে কেবল শ্রমিক নিয়োগ করেই খুব সহজে এই পেট্রোলিয়াম প্রস্তুত করা সম্ভব হবে। প্রথম পর্যায়ে এলপিজি গ্যাস ব্যবহার করে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। পরবর্তী সময়ে বায়োগ্যাস ব্যবহার করে পেট্রোলিয়াম তৈরি করা সম্ভব হবে বলে জানানো হয়েছে।

Advertisements
Loading...