উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কোতে নেকাব নিষিদ্ধ!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কোতে নেকাব তৈরি ও বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, নিরাপত্তাজনিত কারণেই এমন পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটির সরকার।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি সপ্তাহ হতে ওই নিয়ম কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছে মরক্কোর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তবে এখন পর্যন্ত অবশ্য এ বিষয়ে কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়নি কর্তৃপক্ষ।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে দেশটির লি৩৬০ সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদনে বলেছে, ‘দেশের সব শহর ও উপশহরে এই পোশাকটি আমদানি, তৈরি ও বাজারজাতকরণ সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধের পদক্ষেপ নিয়েছি আমরা।’

নিরাপত্তাজনিত কারণে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলেও গণমাধ্যমটি জানিয়েছে। এতে বলা হয়, যেহেতু অপরাধীরা অপরাধ সংঘটনে এই ধরনের পোশাকটি ব্যবহার করে, তাই এই পদক্ষেপ।

জানা গেছে, মরক্কোর বর্তমান রাজা ষষ্ঠ মোহাম্মদ মডারেট ইসলামে বিশ্বাসী। দেশটির বেশিরভাগ নারীই পর্দাপ্রথা পালনে হিজাব ও হেডস্কার্ফ পরে থাকেন। এতে তাদের মুখমণ্ডলের পুরোটা ঢাকে না। তবে উত্তরাঞ্চলের নারীরা তাদের পুরো মুখ ঢেকে রাখতে পছন্দ করে।

গত সোমবার মরক্কোর অর্থনৈতিক রাজধানী ক্যাসাব্লাঙ্কার বিভিন্ন এলাকায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এই বিষয়টি নিয়ে সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান চালান। সেখানকার ব্যবসায়ীদের নতুন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তারা। মরক্কোর উত্তরাঞ্চলের শহর তারোদান্তে ব্যবসায়ীদের বোরকা তৈরি এবং বিক্রি করতে নিষেধ করা হয়।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...