The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মক্কেল না থাকায় বেকার হয়ে পড়েছেন জাপানের আইনজীবীরা!

দেশটির নীতিনির্ধারকরা গত ১৫ বছর ধরে পশ্চিমা আইনি ব্যবস্থার আদলে আইনজীবীর সংখ্যা দ্বিগুণ করে ফেলেছেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মামলার অভাবে জাপানের আইনজীবীরা বেকার হয়ে পড়েছে। নাগরিকদের দ্রুতবিচার নিশ্চিত করার জন্য ১৫ বছর পূর্বে জাপান সরকার আইনজীবীর সংখ্যা ব্যাপকভাবে বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছিল। সে অনুপাতে মামলা না বাড়ায় বহু আইনজীবী এখন কর্মহীন হয়ে পড়েছেন!

মক্কেল না থাকায় বেকার হয়ে পড়েছেন জাপানের আইনজীবীরা! 1

ওয়ালস্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাপানি সমাজে গতিশীলতা আনতে দেশটির নীতিনির্ধারকরা গত ১৫ বছর ধরে পশ্চিমা আইনি ব্যবস্থার আদলে আইনজীবীর সংখ্যা দ্বিগুণ করে ফেলেছেন। তবে বর্তমানে দেশটিতে মামলার সংখ্যা রেকর্ড পরিমাণ কমে গেছে। যে কারণে এই পেশায় আসা পুরাতন আইনজীবীরাই আর কোনো মক্কেল পাচ্ছেন না, নতুনরা তো একেবারে বেকার!

জাপানে ২০১৫ সালে মোট আইনজীবীর সংখ্যা ছিল ৩৬ হাজার ৪১৫ জন। গত শতকের শেষের দিকের তুলনায় এটি প্রায় দ্বিগুণ। এই সময়ের মধ্যে মামলা মোকদ্দমাও কমে গেছে ব্যাপকহারে। জাপানে এখন প্রতি ১০ লাখ মানুষের বিপরীতে আইনজীবীর সংখ্যা ২৮৭। ১০ বা তার কমসংখ্যক আইনজীবী নিয়ে চলে এমন ল’ ফার্মগুলোতে চাকরি করেন অন্ততপক্ষে ৭৮ শতাংশ আইনজীবী।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা গেছে, গত এক দশকে এসব আইন প্রতিষ্ঠানে ভর্তির আবেদন উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কমে গেছে। অনেক আইনজীবীই পেশা ছেড়ে অন্য কিছু করার কথা চিন্তা-ভাবনা করছেন।

একটি ল’ ফার্মের সহপ্রতিষ্ঠাতা শিনিচি সাকানো বলেছেন, কোনো সন্দেহ নেই, এখন মক্কেল খুঁজে পাওয়া অত্যন্ত কঠিন কাজ।

বিশাল অবকাঠামো ও সম্ভাব্য বেকারত্ব নিয়ে জাপানি কর্মকর্তারাও বর্তমানে উদ্বিগ্ন। তাছাড়া এই পেশা ও প্রতিষ্ঠানের ভবিষ্যৎ কী হবে- সেটিও তাদের দারুণভাবে ভাবাচ্ছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...