বিদ্যুৎ ‘খেয়ে’ খিদে মেটানো এক নরেশ কুমারের গল্প!

বিদ্যুৎ খেয়ে খিদে মেটানোর এমন এক নেশার খবর ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এমন একটি খবর দেখে যে কেও বিস্মিত হবেন সেটিই স্বাভাবিক। তবে ঘটনাটি আসলেও সত্যি। বিদ্যুৎ ‘খেয়ে’ খিদে মেটান নরেশ কুমার! এটি তার জন্য এক নেশায় পরিণত হয়েছে।

নানা খবরের মধ্যে এবার সামনে উঠে এসেছে এক অদ্ভুত নেশার কথা। বিদ্যুৎ খেয়ে খিদে মেটানোর এমন এক নেশার খবর ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র।

জানা গেছে, ভারতের উত্তরপ্রদেশের মুজাফ্ফরনগরের বাসিন্দা নরেশ কুমারের নেশা হলো ‘বিদ্যুৎ খাওয়া’! ৪২ বছর বয়সী নরেশ কুমার জ্বলন্ত বাল্বের সংযোগ থাকা তারগুলো দাঁত দিয়ে চিবিয়ে খেতে পছন্দ করে। এভাবেই নাকি তার শরীরের ‘এনার্জি কালেক্ট’ হয় ও খিদে ভাব চলে যায়। সে কারণে স্থানীয় লোকজন তাকে ‘হিউম্যান লাইট বাল্ব’ বলে ডাকে।

নরেশ কুমার দাবি করেছেন, তিনি নিজেকে যেকোনও সময় সরাসরি ইলেকট্রিক লাইনের সঙ্গে সংযুক্তও করে দিতে পারেন। সরাসরি তার শরীর ২২০ ভোল্ট বিদ্যুৎ প্রবাহ সহ্য করতে পারে। এতে তার কোনওরকম শক লাগে না। বাড়িতে কোনও খাবার না থাকলে তিনি বিদ্যুৎ ‘খেয়ে’ থাকেন! ৩০ মিনিট ‘এনার্জি’ সংগ্রহের পর তিনি কয়েক ঘন্টার মধ্যে আর কোনও খিদেই অনুভব করেন না বলে দাবি করেছেন। তার বক্তব্য শুনে এলাকার মানুষতো হতভম্ব। এও কি সম্ভব?

Advertisements
Loading...