চীনের ঐতিহাসিক জিয়ামেন মসজিদ

এই মসজিদটি ৭৪২ সালে নির্মাণ করা হয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুভ সকাল। শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর ২০১৭ খৃস্টাব্দ, ২৮ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২২ মুহররম ১৪৩৯ হিজরি। দি ঢাকা টাইমস্ -এর পক্ষ থেকে সকলকে শুভ সকাল। আজ যাদের জন্মদিন তাদের সকলকে জানাই জন্মদিনের শুভেচ্ছা- শুভ জন্মদিন।

চীনের একটি ঐতিহাসিক মসজিদ হলো এই জিয়ামেন মসজিদ। অত্যন্ত দৃষ্টিনন্দন এই মসজিদটি চীনের জিয়ামেনে অবস্থিত।

চীনের সবচেয়ে প্রাচীন এবং ঐতিহাসিক মসজিদ এটি। এই মসজিদটি ৭৪২ সালে নির্মাণ করা হয়। পরবর্তীতে এই মসজিদটি একাধিকবার সংস্কার করা হয়।

এই মসজিদটিতে কোনো রকম গম্বুজ এবং মিনার নেই। সম্পূর্ণ চাইনিজ শৈল্পিকতায় নির্মাণ করা হয়েছে এই মসজিদটি।

এই মসজিদটির মোট সীমানা ১২ হাজার স্কয়ার মিটার। মসজিদটি ৪টি অংশে অবস্থিত। প্রতিটি স্তরের প্রবেশ পথেই রয়েছে কারুকার্যখচিত বড় বড় দরজা। এই মসজিদটির প্রধান নামাজ কক্ষে একসঙ্গে এক হাজার মুসল্লী নামাজ আদায় করতে পারেন। তবে মোট সীমানায় লোক ধারন ক্ষমতা প্রায় ৬০ হাজার জন।

ঐতিহাসিক একটি পাথরের তৈরি টেবিল রয়েছে এই মসজিদদের ভেতরে। মসজিদ সীমানার ভেতরের উন্মুক্ত স্থানে রয়েছে ফুলের বাগান এবং বসার ব্যবস্থা। প্রধার নামাজ কক্ষের খুব নিকটেই রয়েছে “মুন গেট”। মুন গেটে প্রবেশ করলেই মানব সৃষ্ট ছোট অথচ উঁচু দুইটি পাহাড়ের দেখা পাওয়া যাবে। ইসলামের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের চাঁদ দেখার জন্যই এই পাহাড় দুটি ব্যবহার করা হয় বলে জানা গেছে।

তথ্য: https://forum.projanmo.com এর সৌজন্যে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...