নারীদের বিশ্বাস: বউ পেটানো নাকি যুক্তিযুক্ত!

ভারতের বিহার রাজ্যের ৩৭ শতাংশ নারীর মতামত

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বউ পেটানোর মতো গর্হিত কাজকে এবার নারীরাই স্বীকৃতি দিয়েছে। সম্প্রতি ভারতে এক জরিপে এমন তথ্য উঠে এসেছে!

জরিপে বলা হয়েছে যে, স্ত্রী ঝগড়া করলে স্বামী তাকে পেটাতেই পারে- এই মতামত আর কারো নয়, স্বয়ং ভারতের বিহার রাজ্যের ৩৭ শতাংশ নারীর মতামত।

ন্যাশনাল ফ্যামিলি হেলথ সার্ভের করা এক সমীক্ষায় এই তথ্য উঠে এসেছে। দেশটির অন্যতম পিছিয়ে পড়া এই রাজ্যে নারীর সমানাধিকারের অবস্থাও যে একেবারেই পেছনের সারিতে তা এই তথ্য থেকেই বোঝা যাচ্ছে। এই মতামত যে শুধুমাত্র গ্রামীণ বিহার অঞ্চলের, তা নয়। বিহারের কর্মরত নারীদের ৫৬ শতাংশ বউ পেটানোকে যুক্তিযুক্ত বলেই মনে করেন! ১৫ হতে ১৯ বছর বয়সের ৪৯ শতাংশ শহুরে নারীদের ৩৭ শতাংশ এই একই মত পোষণ করেছেন।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, ৪৫ হাজার ৮১২ জন নারীর ওপর কেন্দ্রীয় পরিবার এবং স্বাস্থ্য কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে এক সমীক্ষা চালায় ন্যাশনাল ফ্যামিলি হেলথ সার্ভে। তাদের সমীক্ষায় ধরা পড়েছে যে, বিহারের ৪১ শতাংশ নারীর বিশ্বাস শ্বশুর-শাশুড়িকে অসম্মান করলে স্ত্রীকে মারধর করার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে তার স্বামীর।

এ বিষয়ে নানা রকম প্রশ্ন করা হয়। কী কী কারণে স্ত্রীকে মারধর করা যুক্তিযুক্ত বলে মনে করেন সে প্রশ্নে বিহারের নারীরা তার একটি তালিকাও তুলে ধরা হয়েছে।

# পরিবার কিংবা সন্তানদের ঠিকমতো দেখাশোনা না করা
# রান্না ভাল না হওয়া
# স্ত্রীর পর-পুরুষে আসক্ত হওয়া ইত্যাদি।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...