এইচআইভি আক্রান্ত পাত্র-পাত্রীদের বিয়ের ওয়েবসাইট!

ভারতের এইচআইভি ভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য সাড়ম্বরে খোলা হয়েছে এই বিয়ের নতুন ওয়েবসাইট

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যারা এইচআইভি ভাইরাস বহন করেন তারা স্বাভাবিক জীবন যাপনের বাইরে থাকেন বা থাকতে হয়। কারণ অন্যকারও সহচার্জে গেলে সেও এই রোগে আক্রান্ত হবেন। তাই তাদের বিয়ে নিয়েও থাকে নানা রকম বিধি নিষেধ। তাই এই সমস্যা সমাধানে এবার এইচআইভি আক্রান্ত পাত্র-পাত্রীদের বিয়ের ওয়েবসাইট খোলা হলো।

জানা গেছে, ভারতের এইচআইভি ভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য সাড়ম্বরে খোলা হয়েছে এই বিয়ের নতুন ওয়েবসাইট। সেখানে স্বেচ্ছায় নিজেদের ছবি ও অন্যান্য তথ্য পোস্ট করছেন এইচআইভি আক্রান্ত পাত্র-পাত্রীরা। এক তথ্যে জানা গেছে, এক-একটি সাইটের মাধ্যমে বছরে গড়ে ১০০ হতে ১৫০ জন এইচআইভি আক্রান্ত পুরুষ এবং নারীর বিয়ে হচ্ছে। এইচআইভি আক্রান্তদের জন্যই এমন সাইট রয়েছে ৪/৫টি। এমন একটি ওয়েব সাইট হলো- positivesaathi.com

আবার অন্তত ৪টি সাইটে ‘স্পেশ্যাল কেস’ বলে একটি বিভাগ রাখা হয়েছে। যেখানে এইচআইভির সঙ্গে থ্যালাসেমিয়া বা ক্যান্সার আক্রান্ত, শারীরিক প্রতিবন্ধীদের বিয়ের সম্বন্ধ করা হয়ে থাকে।

মহারাষ্ট্রের ট্রান্সপোর্ট কর্মকর্তা অনিল ভালিভ ২০০৬ সাল হতে একটি সাইটটি চালু করেন। এখন পর্যন্ত সেখানে প্রায় আড়াই হাজার এইচআইভি আক্রান্ত রোগির বিয়ে হয়েছে। আবার বেঙ্গালুরু হতে ২০১৩ সালে একটি ওয়েবসাইট চালু করেন ধনঞ্জয় নামে জনৈক এক ব্যক্তি। অপর একটি সাইটের শাখা রয়েছে গুরুগ্রাম এবং কোলকাতায়।

এইসব সাইটের মাধ্যমে বিয়ে হয়েছে এমন এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, ‘নিজের রোগ আছে জানার পর কোনও সুস্থ মেয়েকে বিয়ের প্রশ্নই ওঠে না। আবার বিয়ে না করলে কেনো করছি না সেই প্রশ্নে জেরার মুখে পড়তে হয়। এই রকম একটা দিশেহারা অবস্থায় মুশকিল আসান করেছিল এই ওয়েবসাইটই। এখন আমি বিয়ে করে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারছি।’

Loading...