কিডনির জন্য বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ওষুধগুলো সম্পর্কে জেনে নিন

কিডনি হলো আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ কিডনি আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। মানব শরীরে দুটি কিডনি থাকে। একটি নষ্ট হলেও আরেকটি দিয়ে কাজ চলে। তবে দুটি কিডনিই যদি নষ্ট হয় তাহলে মানুষ আর বাঁচতে পারে না। তাই কিডনি ভালো রাখতে হলে কিডনির জন্য বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ওষুধগুলো সম্পর্কে জেনে নিন।

আমরা অনেকেই জানি কিডনি হলো আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। আমাদের শরীরের দুটি কিডনি থাকে সেটিও আমাদের অনেকের জানা। একটি কিডনি নষ্ট হলেও অপরটি দিয়ে কাজ চলে। কিন্তু যদি দুটি কিডনিই নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে মানুষ আর বেঁচে থাকতে পারে না। তবে এই কিডনি আমাদের সচল রাখতে গেলে বেশ কিছু কাজ করতে হয়।

যেমন- কিডনি সচল রাখতে হলে বেশি বেশি পানি পান করতে হবে। কখনও প্রোস্রাবের বেগ এলে তা আটকে রাখা যাবে না। চেষ্টা করতে হবে সময় মতো অর্থাৎ প্রোস্রাবের বেগ এলে সঙ্গে সঙ্গে প্রোস্রাব করে ফেলা। কারণ প্রোস্রাব আটকে রাখলে অনেক সময় কিডনির ক্ষতি করতে পারে।

কিডনি সচল বা ভালো রাখতে হলে আমাদের অনেকগুলো নিয়ম কানুন মেনে চলতে হবে। যেমন কিছু ওষুধ রয়েছে যেগুলো যতো কম খাওয়া যায় ততোই ভালো।

কিডনির জন্য বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ওষুধগুলো হলো:

কিডনির জন্য বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ওষুধ হলো তীব্র ব্যথার ওষুধ। ল্যাবএইডের একটি স্বাস্থ্য টিপস-এ এমন কিছু ওষুধের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। যেমন: ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম, আইবুপ্রোফেন, ইন্ডোমেথাসিন, নেপ্রোক্সেন ইত্যাদি ব্যথানাশক ওষুধ কিডনির জন্য মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে। এমনকি প্যারাসিটামলও কিডনির ক্ষতি করতে পারে। তাই এই সকল ওষুধগুলো ঘন ঘন সেবন বা বেশি মাত্রায় ব্যবহারে কিডনি বিকলের ঝুঁকি বাড়ে সব সময়। তাই চেষ্টা করতে হবে এইসব ব্যথানাশক ওষুধগুলো বর্জন করার জন্য। যদি ব্যথার কারণে প্রয়োজন পড়েও তবে, চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এইসব ওষুধ খেতে হবে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...