আগামীকাল আকাশে ‘সুপারমুন’ দেখা যাবে!

অন্য সময়ের চেয়ে প্রায় ৭% বড় ও ১৫% উজ্জল দেখা যাবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আগামীকাল ১ জানুয়ারি আকাশে ‘সুপারমুন’ দেখা যাবে! এদিকে এই সুপারমুন নিয়ে বিজ্ঞানমনা মানুষের মধ্যে যেনো আগ্রহের শেষ নেই।

বাংলাদেশের আকাশে দেখা যাবে ‘সুপারমুন’। অন্য সময়ের চেয়ে প্রায় ৭% বড় ও ১৫% উজ্জল দেখা গেলেও খালি চোখে এর পার্থক্য খুব একটা বোঝা যাবে না।

বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিকাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাশহুরুল আমিন মিলন জানিয়েছেন, দেশের সব জায়গা থেকেই সন্ধ্যা হতে সুপারমুন দেখা গেলেও রাত ৯টা ৪৬ মিনিটে দেখা যাবে পূর্ণভাবে।

১৯৪৮ সালের পর গত বছর চাঁদ পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে এসেছিল। ২০৩৪ সালের ২৫ নভেম্বরের আগে চাঁদ আর পৃথিবীর এতো কাছে আসবে না।

নাসা আগামী দুমাসের ‘সুপারমুন ট্রিলজির প্রথম পর্ব হিসেবে আখ্যায়িত করেছে, যার পরের দু’টি দেখা যাবে ১লা জানুয়ারি এবং ৩১ জানুয়ারি। ডিসেম্বরের পূর্ণিমাকে সাধারণত শীতল চাঁদ বা কোল্ড মুন বলা হয়ে থাকে।

আজ (রবিবার) দুপুরে চাঁদ যখন সূর্যের বিপরীতে থাকবে, পৃথিবী হতে তার দূরত্ব হবে ২ লাখ ২২ হাজার ৭৬১ মাইল, যা গড় দূরত্ব ২ লাখ ৩৮ হাজার ৯০০ মাইলের চেয়েও কম।

যুক্তরাজ্যের রয়্যাল অ্যাস্ট্রোনমিকাল সোসাইটির রবার্ট ম্যাসে বিবিসিকে বলেছেন যে, মধ্যরাতে চাঁদ সবচেয়ে উজ্জল দেখা যাবে, যখন দিগন্ত হতে সর্বোচ্চ অবস্থানে থাকবে চাঁদ।

সুপারমুনের বৈজ্ঞানিক নাম দেওয়া হয়েছে ‘পেরিগি মুন’। পেরিগি অর্থ হলো ‘পৃথিবীর নিকটতম’। চাঁদ যখন পূর্ণ পূর্ণিমায় থাকে ও বার্ষিক প্রদক্ষিণের সময় পৃথিবীর কাছাকাছি চলে আসে তখন এটিকে সুপারমুন হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

Advertisements
Loading...