রাশিয়াসহ তিন দেশ ইরানে বিদেশী হস্তক্ষেপ চায় না

টি হচ্ছে সম্পূর্ণভাবেই ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়

Iranian students run for cover from tear gas at the University of Tehran during a demonstration driven by anger over economic problems, in the capital Tehran on December 30, 2017. Students protested in a third day of demonstrations, videos on social media showed, but were outnumbered by counter-demonstrators. / AFP PHOTO / STR (Photo credit should read STR/AFP/Getty Images)

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রাশিয়া, তুরস্ক ও সিরিয়া এই তিন দেশ ইরানে বিদেশী হস্তক্ষেপ চায় না। ইরানে অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশী হস্তক্ষেপের ঘটনা প্রত্যাখ্যান করে আশা প্রকাশ করেছে যে, ‘ইরানে আর কোনো রকম সহিংসতার ঘটনা ঘটবে না।’

ইরানের ভেতরে সহিংসতার খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। দেশটি বলেছে- সব রকমের সহিংসতা পরিহার করতে হবে। সেইসঙ্গে বিদেশী হস্তক্ষেপ বন্ধেরও আশা করছে তুরস্ক।

গত সোমবার রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘এটি হচ্ছে সম্পূর্ণভাবেই ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়। বাইরের হস্তক্ষেপের মাধ্যমে পরিস্থিতিকে অস্থিতিশীল করে তোলার ঘটনা কখনও গ্রহণযোগ্য নয়। আমরা আশা করি যে, পরিস্থিতি রক্তপাত এবং সহিংসতার দিকে যাবে না।’

অপরদিকে ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের জন্য আমেরিকা এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলের তীব্র নিন্দাও করেছে সিরিয়া। দেশটি ইরানের জনগণের প্রতি পূর্ন সংহতি প্রকাশ করেছে।

সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আশা করছে যে- ইরানের নেতৃত্ব, সরকার এবং জনগণ সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, দ্রব্যমূল্য বেড়ে যাওয়া এবং দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে গত সপ্তাহ হতে ইরানের কয়েকটি শহরে কিছু মানুষ মিছিল-সমাবেশ করেছে। সেখানে বিক্ষিপ্ত কিছু সহিংসতার ঘটনাও ঘটেছে।

Advertisements
Loading...