The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

৩টি কুকুর সারারাত পাহারা দিয়ে রক্ষা করলো ফেলে যাওয়া নবজাতককে!

কে বা কারা গ্রামের রাস্তার পাশে শিশুকন্যাটিকে ফেলে যায়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ৩টি কুকুর সারারাত পাহারা দিয়ে রক্ষা করলো ফেলে যাওয়া এক নবজাতককে! এমন ঘটনা সত্যিই বিরল। মানুষের থেকে কুকুরের মহানুভবতা কতখানি তা এই ঘটনাতেই প্রমাণ মেলে।

৩টি কুকুর সারারাত পাহারা দিয়ে রক্ষা করলো ফেলে যাওয়া নবজাতককে! 1

ফেলে দেওয়া এক নবজাতককে ৩টি কুকুর সারারাত ধরে পাহারা দিয়েছিল। কে বা কারা গ্রামের রাস্তার পাশে শিশুকন্যাটিকে ফেলে যায়। প্রবল ঠাণ্ডার মধ্যে পড়ে থাকা ওই নবজাতককে রাতভর পাহারা দেয় এলাকার ৩টি কুকুর। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ে এমন একটি ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন যে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ের হাটপুকুরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ডেবিসাবাদ গ্রামে গত রবিবার সকালে ওই নবজাতককে উদ্ধার করা হয়। বাড়ির পাশে সারারাত কুকুরের চিৎকার শুনে বিরক্ত হয়ে ভোরে বাড়ির পেছনে যান গ্রামের জনৈক বাসিন্দা আব্দুল গনি মোল্লা। গিয়েই তিনি অবাক হয়ে যান। তিনি দেখেন, ৩টি কুকুর পাহারা দিচ্ছে এক নবজাতককে!

এই খবর জানাজানি হতেই ঘটনাস্থলে ভিড় করেন গ্রামবাসী। তবে ওই নবজাতকের কাছে কাওকে ঘেঁষতে দিচ্ছিল না কুকুরগুলো। এই দৃশ্য দেখে অবাক হয়ে যান উপস্থিত সকলেই। এরপর গ্রামের কয়েকজন যুবকের চেষ্টায় কুকুর ৩টিকে সরিয়ে ওই নবজাতককে শেষ পর্যন্ত উদ্ধার করা হয়।

গ্রামের এক দম্পতি তারপর শিশুটিকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান। প্রাথমিক শুশ্রুষা দিয়ে তাকে দুধ খাওয়ানো হয়। ওই দম্পতির কোনো কন্যাসন্তান না থাকায় তারা শিশুটিকে দত্তক নিতে চান। পরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন চাইল্ড লাইনের কর্মীরা। শিশুটিকে তারা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান।

শিশুটিকে কে ফেলে গেছে তা জানা এখনও জানা যায়নি। তবে ক্যানিং থানা পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে।

Loading...