The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

দুই মাস বয়সী সন্তানকে কোলে নিয়ে পরীক্ষা দিলেন এক মা!

মেঝেতে পরীক্ষা দিতে বসা ওই নারীর বাড়ি আফগানিস্তানে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ হলরুমে সকলেই চেয়ারে বসে পরীক্ষা দিলেও পরীক্ষা হলে এসে দুই মাস বয়সী সন্তানকে কোলে নিয়ে পরীক্ষা দিলেন এক মা! ঘটনাটি বেশ চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

দুই মাস বয়সী সন্তানকে কোলে নিয়ে পরীক্ষা দিলেন এক মা! 1

সবাই যখন হলরুমে পরীক্ষা দিচ্ছেন চেয়ারে বসে। তখন এক তরুণী পরীক্ষা দিচ্ছেন মেঝেতে বসে। সেখানেই চলছে প্রশ্ন দেখা ও উত্তর লেখার কাজ। সম্প্রতি এমন একটি ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল। হয়তো কেও ভাবতে পারেন শাস্তিস্বরূপ তাকে মেঝেতে পরীক্ষা দিতে বসতে হয়েছে, কিন্তু আসলে তা নয়, ওই নারী দুই মাস বয়সী সন্তানকে নিয়েই পরীক্ষা হলে এসেছেন। এর মাধ্যমে সন্তানের প্রতি মায়ের অকৃত্রিম ভালোবাসা আরও একবার প্রকাশ্যে উঠে এলো।

সংবাদ মাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, মেঝেতে পরীক্ষা দিতে বসা ওই নারীর বাড়ি আফগানিস্তানে। ওই নারীর নাম জাহান তাব। তিনি আফগানিস্তানের ডেয়কুন্ডি প্রদেশের একটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির ছাত্রী। ২৫ বসয়ী এই নারীর স্বামী একজন কৃষক। সংসারের পাশাপাশি পড়াশোনাও চালিয়ে যাচ্ছেন জাহান তাব।

সংসারে সন্তানকে দেখার তেমন কেও না থাকায় বাধ্য হয়েই নিজের দুই মাস বয়সী শিশুকে নিয়ে পরীক্ষা দিতে যান তিনি। পরীক্ষার সময় শিশুটিকে পাশেই রাখেন। কিন্তু এক পর্যায়ে শিশুটি কান্না শুরু করলে তাকে কোলে নিয়ে মেঝেতে বসে পড়েন জাহান তাব। এরপর পরীক্ষার বাকি সময়টিতে তিনি এভাবে লেখেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী পরীক্ষা হলের পরিদর্শক শিক্ষক ইয়াহিয়া ইরফান ওই ছবিটি তুলেছেন। একইসঙ্গে ছবিটি শেয়ার করে সন্তানের জন্য মায়ের সংগ্রামের কথা তুলে ধরেছেন তিনি। তবে পরীক্ষার পরপরই তিনি ছবিটি প্রকাশ না করে ওই শিক্ষক ছবিটি প্রকাশ করেন সন্তান নিয়ে পরীক্ষা দিয়েও উত্তীর্ণ হওয়ার পর! সত্যিই ইচ্ছা থাকলে অনেক কিছুই করা সম্ভব তা সমাজকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলের ওই আফগান নারী জাহান তাব।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...