কৃষিকাজের জন্য স্কুল থেকে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে বানর!

মালয়েশিয়ার সব অঞ্চলের মানুষই নামমাত্র অর্থের বিনিময়ে তাদের বানরগুলোকে প্রশিক্ষণের জন্য এই স্কুলটিতে পাঠিয়ে থাকে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বানরও মানুষের মতো করে প্রশিক্ষণ নিতে শুরু করেছে। ঘটনাটি মালয়েশিয়ার। সেখানকার কৃষকদের কৃষিকাজে সহায়তার জন্য স্কুল থেকে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে বানর!

মালয়েশিয়ায় বানরদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার এই স্কুল খুলেছেন ওয়ান ইবরাহিম ওয়ান ম্যাট নামে জনৈক ব্যক্তি। নর্দার্ন কেল্যান্ট্যান রাজ্যের প্যাড্যাং হ্যালব্যানের একটি ছোট গ্রামে এই স্কুলটির অবস্থান। এই স্থানে রয়েছে অসংখ্য নারকেল গাছ।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা গেছে, মালয়েশিয়ার সব অঞ্চলের মানুষই নামমাত্র অর্থের বিনিময়ে তাদের বানরগুলোকে প্রশিক্ষণের জন্য এই স্কুলটিতে পাঠিয়ে থাকে। ৪০ বছর ধরে বানরদের প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন গ্র্যান্ডফাদার ওয়ান নামে পরিচিত এক ব্যক্তি।

৬৩ বছর বয়সী এই বৃদ্ধ বানরদের কৃষিকাজে পারদর্শী করে তোলেন! এতে কৃষকদের সময় এবং শ্রমও বাঁচছে। শুধু কৃষিকাজ নয়, নারকেল গাছ হতে ডাব পেড়ে আনতে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় বানরদের।

বানরদের প্রশিক্ষক গ্র্যান্ডফাদার ওয়ান বলেছেন, বানরগুলো আমাদের কাছে সন্তানের মতোই। তারা নারকেল গাছ বেয়ে ওপরে ওঠে। সেখান থেকে নারকেল ফেললে আমরা তাদের আদরও করি। ভালোবেসে তাদেরকে আমরা পিঠ চাপড়ে দিই।

ওয়ানের বয়স যখন ২০ হবে, তখন তিনি বানরদের প্রশিক্ষণ দিতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন। তার কাজের পথটা খুব একটা সহজও ছিল না। তার বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলে অ্যানিম্যাল রাইটস গ্রুপ নামে একটি সংগঠন। বানরদের ওপর তিনি অত্যাচার না করায় শেষ পর্যন্ত পিছু হটেন আন্দোলনকারীরা। তারপর থেকে তিনি বানরদের প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...