The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কীটনাশকের বিকল্প হিসেবে কাজ করছে হাঁস! [ভিডিও]

আগাছার বীজও খেয়ে ফেলে এই হাঁসগুলো। তাই পরবর্তী মৌসুমে ওই জমির আগাছা খুব কমই হয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ফসল বা গাছ-গাছালিতে কীটনাশক দেওয়া হয় সেটি আমাদের সকলের জানা। তবে এবার নতুন খবর হলো এবার কীটনাশকের বিকল্প হিসেবে কাজ করছে হাঁস!

কীটনাশকের বিকল্প হিসেবে কাজ করছে হাঁস! [ভিডিও] 1

সংবাদ মাধ্যমের এক খবরে জানা যায়, এবার কীটনাশকের পরিবর্তে জমিতে হাঁস ব্যবহার করছেন জাপানীজ কৃষকরা! তাতে বেশ ভালো ফলও আসছে কৃষকদের। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের তৈরি করা এক প্রতিবেদনে তেমনই বলা হয়েছে। যাচ্ছে৷ মাত্র একদিন আগে পোস্ট করা একটি ভিডিও ব্যাপক সাড়া ফেলেছে৷

‘ব্রেড ডাক` নামে পরিচিতি বিশেষ প্রজাতির একটি হাঁস ফসলের জমিতে কীটনাশকের ভূমিকায় ভীষণভাবে কার্যকরি বলে জানা গেছে। হাঁসদেরকে ধান ক্ষেতে ছেড়ে দেন চাষীরা। তারা তখন জমির সব পোকামাকড় ও আগাছা খেয়ে সাফ করে ফেলে! তবে এতে ধান গাছের কোনো ক্ষতি করে না।

শুধুমাত্র আগাছাই নয়, আগাছার বীজও খেয়ে ফেলে এই হাঁসগুলো। তাই পরবর্তী মৌসুমে ওই জমির আগাছা খুব কমই হয়। এই পদ্ধতিতে বেড়ে ওঠা ফসল ঘূর্ণিঝড় এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও টিকে থাকার লড়াইয়ে অন্যদের চেয়ে অনেক শক্তিশালী হয়ে থাকে।

যে কারণে কৃষকরা রাসায়নিক সার ব্যবহার করেন না, অথচ এটি পরিবেশের জন্য খুবই ভালো। এর একটাই অসুবিধা, যখন হাঁসগুলো খুব মোটা হয়ে যায়, তখন শরীরের ভারসাম্য রাখতে না পারায় ধান গাছগুলোকে মাড়িয়ে দেয় অনেক সময়। তাই প্রতিবছর নতুন নতুন হাঁসের প্রয়োজন পড়ে। তবে কেবল জাপানই নয়, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড, এমনকি ইরানেও এই পদ্ধতি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। এই পদ্ধতিতে চাষাবাদ করে রাসায়নিকের উপর নির্ভরশীলতা অনেকটাই কমিয়ে আনা সম্ভব।

সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি ভিডিওটি ইউটিউবে প্রকাশ পেয়েছে। কিভাবে হাঁস ধানক্ষেতে নেমে পোকা-মাকড় ও আগাছা খাচ্ছে তা ভিডিওতে দেখা গেছে।

দেখুন ভিডিওটি
https://www.youtube.com/watch?v=JnJwiHLMPhs

Loading...