রোহিঙ্গাদের নিয়ে চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন রওনক-সায়রা

রোহিঙ্গা পরিবারগুলোর অস্তিত্ব সংকট নিয়ে এই চলচ্চিত্রটির কাহিনীর বিন্যাস ঘটেছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রোহিঙ্গাদের নিয়ে চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন রওনক-সায়রা জুটি। নির্মাতা প্রসূন রহমান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে তৈরি করছেন ‘জন্মভূমি’ নামের একটি চলচ্চিত্র।

ছোট পর্দার অভিনেতা এবং নাট্যকার রওনক হাসানকে এবার পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে দেখা যাবে। নির্মাতা প্রসূন রহমান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে তৈরি করছেন ‘জন্মভূমি’ নামে একটি চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন এই অভিনেতা। তার নায়িকা হিসেবে সঙ্গে রয়েছেন মডেল সায়রা জাহান।

রোহিঙ্গা পরিবারগুলোর অস্তিত্ব সংকট নিয়ে এই চলচ্চিত্রটির কাহিনীর বিন্যাস ঘটেছে। সেইসঙ্গে রয়েছে নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার আকাঙ্ক্ষাও।

এখানে দেখা যাবে রওনক ও সায়রা দুজনই রোহিঙ্গা। তবে রওনক ১০ বছর পূর্বে বাংলাদেশে এসেছেন। তাই এবারের শরণার্থীরা বাংলাদেশে আসার পর হতে তিনি নতুন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করছেন। যেখানে তার পরিচয় ঘটে তরুণী শরণার্থী সায়রার সঙ্গে।

এই সম্পর্কে রওনক হাসান বলেছেন, ‘প্রত্যেক মানুষেরই তার জন্মভূমিতে বাঁচা এবং মৃত্যুর অধিকার রয়েছে। তা সে যে দেশেরই শরণার্থী হোক না কেনো। এই চলচ্চিত্রটি রোহিঙ্গাদের শরণার্থী জীবনের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত হচ্ছে। সমগ্র পৃথিবীর জন্যই এই সিনেমাটি হবে প্রাসঙ্গিক। বিশ্বজুড়ে যে শরণার্থী সমস্যা তারই একটা রূপ উঠে আসবে এই চলচ্চিত্রে। এখানে প্রেম রয়েছে, দেশপ্রেম রয়েছে, আবার মানবিকতাও রয়েছে।’

সিনেমার শুটিং সম্পর্কে অভিনেতা রওনক হাসান বলেছেন, ‘আমার অভিজ্ঞতা ছিল অন্যরকম। তবে এটা অনেক কষ্টের কাজও ছিল আমাদের জন্য।

গত ৫ জুলাই হতে ১২ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজারের উখিয়া ক্যাম্পে এই চলচ্চিত্রটির কাজ চলেছে। তাছাড়া বেশ কিছু দৃশ্য রাখা হয় নাফ নদীতে। যে পথ দিয়ে মিয়ানমারের শরণার্থীরা উখিয়ায় ঢুকেছে।

জানা গেছে, খুব শীঘ্রই চলচ্চিত্রটির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ শেষ হবে। আগামী আগস্ট মাসের শেষ দিকে ‌‘জন্মভূমি’ মুক্তি পেতে পারে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...