সাইবার ক্রাইমের শিকার হলে করণীয়

অপরাধীরা বিভিন্ন ধরনের ফাঁদ পেতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে নানাভাবে হয়রানির চেষ্টা করছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ প্রযুক্তির অবাধ ব্যবহারের কারণে সাইবার ক্রাইমও বর্তমানে বেড়েছে। রাষ্ট্রীয় এবং ব্যক্তিগত পর্যায়ে সাইবার ক্রাইম হচ্ছে। সাইবার ক্রাইমের শিকার হলে করণীয় কী তা জেনে নিন।

যেমন ইন্টারনেটের ব্যবহার বৃদ্ধি পেয়েছে ঠিক তেমনি সেইসঙ্গে সাইবার ক্রাইমের পরিমাণও দিন দিন বাড়ছে। অপরাধীরা বিভিন্ন ধরনের ফাঁদ পেতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে নানাভাবে হয়রানির চেষ্টা করছে। ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে কিংবা সামাজিকভাবে হেয় করছে। সামান্য একটু সচেতন হলেই অনেকাংশে এসব প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে। তারপরও কেও যদি সাইবার আক্রমণের শিকার হন তাহলে তার জন্য কিছু করণীয় রয়েছে। আজ জেনে নিন সেইসব করণীয়গুলো।

হ্যাকিং এর শিকার হলে কিংবা যদি কারও অশ্লীল ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়া হয় বা ফেসবুক হ্যাক করা হয় সেক্ষেত্রে কী করণীয় এ বিষয়ে কথা বলেছেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের উপকমিশনার (ডিসি) আলীমুজ্জামান।

তিনি বলেছেন, যদি কেও সাইবার অপরাধের শিকার হন তাহলে তাকে প্রথমে পুলিশে রিপোর্ট করতে হবে। ঢাকা মহানগর হলে ডিএমপি’তে আমাদের সাইবার ক্রাইম ইউনিট কাজ করে চলেছে। এখানে অভিযোগ জানাতে হবে। ঢাকার বাইরে হলে সংশ্লিষ্ট থানায় যোগাযোগ করতে হবে। ঢাকা মহানগরে যোগাযোগের জন্য আমাদের ফেসবুক সাইট: https://www.facebook.com/cyberctdmp এখানে যে কেও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগও করতে পারে। অথবা ০১৭৬৯৬৯১৫২২ এই নাম্বারে যোগাযোগও করা যেতে পারে। তবে স্বশরীরে আসলে খুব ভালো। পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে কাজটি করতে হবে।

তিনি আরও জানান, কারও যদি ফেসবুক বা ই-মেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয় সেক্ষেত্রে তা পুনরুদ্ধারের সুযোগ রয়েছে। এই বিষয়েও পুলিশকে অবহিত করতে হবে কিংবা রিপোর্ট করতে হবে। এখানে থার্ড পার্টির কোনো সুযোগই নেই। নিজে এসে অভিযোগ জানাবে ও খুব দ্রুতই এর প্রতিকারও পাওয়া যাবে।

Advertisements
Loading...