আজ পবিত্র লাইলাতুল বরাত

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আজ সোমবার দিবসের সূর্য অস্ত গেলেই এক পবিত্র রজনীর আবির্ভাব ঘটবে। যাকে আমরা বলি পবিত্র লাইলাতুল বরাত বা শবেবরাত। পাপ থেকে ক্ষমা প্রার্থনা করে নিষ্কৃতি লাভের পরম সৌভাগ্যের রজনী আজ।

Today Lailatul Barat

আজকের বিশেষ এ রাতে মহান আল্লাহ সুবহানাহুওতায়ালা পরবর্তী বছরের হায়াত, মউত, রিজিক, দৌলত, আমল প্রভৃতি যাবতীয় আদেশ-নিষেধ ফয়সালা করেন। তাৎপর্যপূর্ণ এই রাতে বিশেষ বরকত হাসিলের নিয়তে মুসলমানরা রাত জেগে ইবাদত-বন্দেগি, জিকির-আসকার, মিলাদ-মাহফিল, নফল নামাজ আদায় ও কোরআন তেলাওয়াতে মশগুল থাকেন। অনেকে আবার আজ ও কাল রোজাও রাখেন।

শবে বরাতকে ‘লাইলাতুল বারাআত’ নামে অভিহিত করা হয়। ‘লাইলাতু’ আরবী শব্দ, আর ‘শব’ শব্দটি ফারসী। দুইটি শব্দ-বন্ধের অর্থই হল রাত। অপরপক্ষে ‘বারাআত’ শব্দের অর্থ হল নাজাত, নিষ্কৃতি বা মুক্তি। এ রাতে বান্দারা মহান আল্লাহ তা’য়ালার নিকট থেকে মার্জনা লাভ করে থাকেন। এ কারণে এ রাতকে ‘লাইলাতুল বারাআত’ বা শবেবরাত বলা হয়। শাবান মাসের মধ্যবর্তী রাতে পবিত্র শবেবরাত পালিত হয়। এ ব্যাপারে কুরআন শরিফে সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ না থাকলেও হাদীস শরীফে এটাকে ‘লাইলাতুন নিসফি মিন শাবান’ বা মধ্য শাবানের রাত্রি নামে অভিহিত করা হয়েছে। আর পক্ষকাল পরেই আসবে মাহে রমজান। লাইলাতুল বারায়াত মাসব্যাপী সেই প্রশিক্ষণের পূর্বপ্রস্তুতিস্বরূপ। এজন্য একে বলা হয়ে থাকে রমজানের মুয়াজ্জিন বা পতাকাবাহী।

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও ভারতে এ রাতটি শবেবরাত হিসাবে অধিক পরিচিত। ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রকাশিত ‘ইসলামী বিশ্বকোষ’ গ্রন্থে বর্ণিত হয়েছে যে, ‘ইরান ও ভারতীয় উপমহাদেশে এ মাসের একটি রজনীকে ‘শব-ই-বরাত’ বলা হয়। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার কোন কোন দেশের কোন কোন অঞ্চলে শবেবরাত ভিন্ন নামে পরিচিত। আরব বিশ্বের মানুষ এ রাতকে ‘লাইলাতুন নিসফে মিন শাবান’ বলেন।

সূর্য অস্তমিত হওয়ার পরক্ষণ থেকে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের নূরের তাজাল্লি পৃথিবীর কাছাকাছি আসমানে প্রকাশ পায়। তখন আল্লাহপাক বলতে থাকেন, আছে কি কেও ক্ষমাপ্রার্থী, যাকে আমি ক্ষমা করবো, আছে কি কেও রিজিকপ্রার্থী, যাকে আমি রিজিক প্রদান করব আছে কি কেও বিপদগ্রস্ত যাকে আমি বিপদমুক্ত করব আল্লাহপাকের মহান দরবার থেকে প্রদত্ত এ আহ্‌বান অব্যাহত থাকে ফজর পর্যন্ত। বস্তুত শবেবরাত হলো আল্লাহপাকের মহান দরবারে ক্ষমা প্রার্থনার বিশেষ সময়। আল্লাহপাকের নৈকট্য লাভের এক দুর্লভ সুযোগ এনে দেয় শবেবরাত।

আর তাই বিশ্বের অন্যান্য মুসলিম সমপ্রদায়ের সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশেও ধর্মীয় ভাবগাম্ভির্য পরিবেশে এই রজনীটি পালিত হয়ে থাকে। পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে আগামীকাল সরকারি ছুটি।

পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া পৃথক পৃথক বাণীতে পবিত্র শবেবরাতের শিক্ষায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সবার প্রতি মানব কল্যাণে ও দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করার আহ্‌বান জানিয়েছেন।

Advertisements
Loading...