The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

চোর ধরার কাজে এবার ব্যবহার হচ্ছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা!

ক্যাশিয়ারের স্ক্যানিং ছাড়াই কোনও পণ্য কেও শপিং ব্যাগে ঢুকিয়ে ফেললে তা চিহ্নিত করে ফেলে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির ক্যামেরা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপারমার্কেট জায়ান্ট ওয়ালমার্ট চোর শনাক্তকরণে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির ক্যামেরা ব্যবহার শুরু করেছে। এসব ক্যামেরা ইমেজ রিকগনিশন পদ্ধতির সাহায্য নিয়ে কাজটি করছে!

চোর ধরার কাজে এবার ব্যবহার হচ্ছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা! 1

বিবিসি এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক্যাশিয়ারের স্ক্যানিং ছাড়াই কোনও পণ্য কেও শপিং ব্যাগে ঢুকিয়ে ফেললে তা চিহ্নিত করে ফেলে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির ক্যামেরা। এমনকি সেলফ সার্ভিস চেকআউটের (নিজে নিজে পণ্য স্ক্যানিং করে দাম পরিশোধ করার পদ্ধতি) ক্ষেত্রেও এসব ক্যামেরা কার্যকরী ভূমিকা রাখবে।

মার্কিন গণমাধ্যম বিজনেস ইনসাইডারকে ওয়ালমার্ট জানিয়েছে যে, তারা এখন পর্যন্ত ১ হাজার স্টোরে এই ধরনের ক্যামেরা ব্যবহার করেছেন। গ্রাহক ও অন্য সহযোগীদের সুরক্ষা নিশ্চিতের জন্যই তারা এই ক্ষেত্রটিতে বিনিয়োগ করেছেস বলে জানিয়েছেন।

ওয়ালমার্টের এই প্রকল্পটিকে ডাকা হচ্ছে মিসড স্ক্যান ডিটেকশন বাই ওয়ালমার্ট নামে। ওয়ালমার্ট কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার যে ক্যামেরা ব্যবহার করছে সেটি সরবরাহ করেছে আয়ারল্যান্ডের প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এভারসিন।

ওয়ালমার্টের সর্বাধুনিক এই ক্যামেরা মূলত মানুষ ট্র্যাক করার পরিবর্তে পণ্য ট্র্যাক করবে। কোনও পণ্য ক্যাশ বিভাগে স্ক্যানিং ছাড়াই শপিং ব্যাগে ঢোকানোর চেষ্টা করা হলে তা চিহ্নিত করবে এগুলো। এই সমস্যা সমাধানের জন্য ওই ক্যামেরা ওয়ালমার্টের একজন কর্মীকে ডাকবে।

এই বিষয়ে ওয়ালমার্ট জানিয়েছে যে, এই প্রযুক্তি ব্যবহারের পর হতে চুরি বা ভুলের কারণে পণ্য হারানোর পরিমাণ একেবারেই কমে এসেছে।

Loading...