The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

প্রেমিকাকে এক ব্যতিক্রমি বিয়ের প্রস্তাব!

এবার বিয়ের প্রস্তাব দিতে ক্রয় করা আংটিতে গাজর চাষ করেছেন এক ব্যক্তি!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মনের মানুষটিকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে অনেকেই বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। তবে এবার একটু ব্যতিক্রমি ঘটনা ঘটিয়েছেন এক প্রেমিক। হীরার আংটির মধ্যে গাজর চাষ করে প্রেমিকাকে এক ব্যতিক্রমি বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন!

প্রেমিকাকে এক ব্যতিক্রমি বিয়ের প্রস্তাব! 1

বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে লাখ লাখ টাকাও খরচ করেন অনেকেই। তবে এবার বিয়ের প্রস্তাব দিতে ক্রয় করা আংটিতে গাজর চাষ করেছেন এক ব্যক্তি! সে জন্য ফসলি জমিতে আংটিটি কয়েক মাস বীজ বোনার মতো বপন করে রাখতে হয় ওই ব্যক্তিকে!

কানাডার জনৈক জন নেভিল অবাস্তব মনে হলেও এমনই কাণ্ড করে দেখিয়েছেন। প্রায় ৬ বছর ধরে ড্যানিয়েল নামে এক নারীর সঙ্গে সংসার করে আসছিলেন জন নেভিল। এই ৬ বছরের মধ্যে এই যুগলের ঘর আলোকিত করেছে দুটি সন্তান। তবে সামাজিকভাবে ঘটা করে ড্যানিয়েলকে বিয়ে করা হয়নি জন নেভিলের। ব্যস্ত জীবনে কখনও ‘আমাকে বিয়ে করবে?’ কথাটিও বলা হয়ে ওঠেনি জন নেভিলের।

তাই বলে বিষয়টি কিন্তু একেবারেই ভোলেননি জন নেভিল। ৪ বছর আগে তার স্ত্রী ড্যানিয়েল যখন প্রথম গর্ভবতী হন, তখনই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে একটি হীরার আংটি কেনেন জন নেভিল। তিনি চেয়েছিলেন যে, অভিনব কোনো উপায়ে প্রেমিকা ড্যানিয়েলকে এই হীরার আংটিটি উপহার দেবেন।

জন নেভিল পশুপালনসহ বিভিন্ন শাকসবজির চাষ করতেন। কৃষিকাজ তার ভালো ভাবেই জানা। প্রথমে মাটি দিয়ে একটি পাঁচ গ্যালনের প্লাস্টিকের বালতি ভরে ফেলেন জন নেভিল। বালতির কেন্দ্রে তিনি হীরার আংটিটি রাখেন এবং তার উপর মাটিচাপা দিয়ে দেন। তারপর আংটির মাঝখানে মাটিতে সরু গর্ত তৈরি করার জন্য একটি পেন্সিলও ব্যবহার করেন। সেখানে গাজরের কয়েকটি বীজ বপন করেন তিনি। আংটির ওই ফাঁকটুকু দিয়েই গাজর বাড়বে বলে বিশ্বাস জন্মেছিলো জন নেভিলের।

ঠিক তাই ঘটলো ৯০ দিন অপেক্ষার পর। অবশেষে গাজর উঁকি মারলো আংটি দিয়ে। জন নেভিল জানিয়েছেন যে, ‘কাজের মধ্যে সবসময়ই মনে থাকতো যে, অন্য সবার মতো প্রপোজ করে বিয়ে করা হয়নি ড্যানিয়েলকে। তবে আমাদের আসলে খুব একটা তাড়া ছিল না। তবে বড় সন্তান এরিক আমাদের মাঝে চলে এলে বিষয়টি খুব অনুভব করি আমি। তখনই এই খেয়াল চাপে আমার মাথায়। দেরি যখন করেই ফেলেছি তখন অভিনব উপায়ে কিছু একটা করবো তাই ভেবেছি। আমি নিজেই চেয়েছিলাম ঠিক প্রেম নয়, প্রেমের ফসল আমি ফলাবো। তাই হীরার আংটিতে গাজর ফলিয়েছি আমি।’

এরপর জন নেভিল গাজরের সেই আংটিটি নিয়ে হাঁটুতে ভর দিয়ে বসে পড়েন। তারপর তিনি ড্যানিয়েলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আমি তোমাকে খুব ভালোবাসি। তুমি কী আমাকে বিয়ে করবে?’ নেভিলের দিকে তাকিয়ে বেশ খানিক অবাকই হয়ে যান ড্যানিয়েল। জন নেভিলের প্রস্তাব পেয়ে রাজি হতে গিয়ে কেঁদেই ফেলেন ড্যানিয়েল। জন নেভিলের এই কাজ ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে সোস্যাল মিডিয়াতে। শুধু তাই নয়, বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমেও প্রকাশিত হয়েছে তার এই আজব কাণ্ড!

Loading...