The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ফেসবুক হয়রানি থেকে বাঁচুন

সামাজিক মাধ্যম গুলোর মাঝে সেরা ও অন্যতম একটি সামাজিক যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম হল ফেসবুক

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আধুনিকায়নের এই যুগে যেখানে ইন্টারনেট আমাদের জীবন ব্যবস্থাকে করেছে সহজ ও সমৃদ্ধশালী। ইন্টারনেটের হাজারো সুবিধা ও সুফল ভোগ করে চলেছি আমরা অনেক দিন যাবত।

ফেসবুক হয়রানি থেকে বাঁচুন 1

ইন্টারনেটের এরুপ সবিধা ও সুফলের মধ্যে অন্যতম এর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বেবস্থা। এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বেবস্থা আমাদের ও দেশ বিদেশের মানুষের মাঝের দূরত্ব যেন এক মিনিটের কম সময়ের মাঝেই পরিসমাপ্তি করে দেয়। বর্তমানে একটি বাটন প্রেস করে আমি ক্ষণিকের মধ্যেই আপনার আপন জনের সাথে কথা বলতে পারবেন। দেশ বিদেশের মাঝের দূরত্ব কমে আসবে এক নিমিষেই। সম্প্রতি ইন্টারনেটের দুনিয়াতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের হাজারো প্লাটফর্ম রয়েছে। এ সকল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে লাখো হাজারো মানুষ তাদের আপন জনদের সাথে কথা বলা, চ্যাট করার পাশাপাশি ভিডিও কল করে চলেছে দিনের পর দিন।

সামাজিক মাধ্যম গুলোর মাঝে সেরা ও অন্যতম একটি সামাজিক যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম হল ফেসবুক। আমরা যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারি তাদের কাছে ফেসবুক একটি আতিব পরিচিত একটি নাম। এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোর মাঝে সবচেয়ে সেরা ও জনপ্রিয়। যার দারা আমরা খুব সহজেই আমাদের পছন্দ মত বন্ধু বাছাই করতে পারি দেশ বিদেশ বাছাই করে। ফেসবুক দ্বারা আমরা খুব সহজে অডিও কলিং ভিডিও কলিং এর পাশাপাশি আমাদের পছন্দমত বার্তা সকলের কাছে পৌঁছে দিতে পারি আমাদের প্রোফাইলে প্রদান করে। আমরা আমাদের ছবি থেকে শুরু করে ভিডিও অডিও এমনকি নানাবিধ পোস্ট শেয়ার করতে পারি সকলের সাথে। এর পাশাপাশি অন্যান্যদের কার্যকলাপের মাঝে আমরা আমাদের মন্তব্য প্রদান করতে পারি খুব সহজেই। এসকল সুবিধা প্রদানের ফলে ফেসবুক বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি যোগাযোগ মাধ্যমে পরিণত হয়েছে।

তবে আমাদের একান্ত ব্যক্তিগত ফেসবুক প্রোফাইল বা অ্যাকাউন্টটি হতে পারে আমাদের আতঙ্কের কারণ। কারণ বর্তমানে ফেসবুক হ্যাকিংয়ের ঘটনা অতিব মাত্রায় বেড়ে গেছে। আপনার ফেসবুক আইডিটি হ্যাক করে অপকর্ম করতে সক্রিয় রয়েছে হাজারও হ্যাকার ও অসাধু কিছু ব্যক্তিবর্গ। যার ফলে আপনার প্রোফাইল থেকে সহজেই হ্যাক করে উল্টাপাল্টা খারাপ ধরনের ছবি প্রদান করে নষ্ট করছে আপনার আত্মসম্মানবোধ সকলের কাছে। পাশাপাশি ব্ল্যাকমেইলিং ও চাঁদাবাজির মত দণ্ডনীয় অপরাধ বৃদ্ধি পাচ্ছে এই ফেসবুক হ্যাকিং এর দ্বারা। বর্তমানে ফেসবুক হ্যাকিংয়ের আতঙ্কে ফেসবুক আইডি কে রক্ষা করার জন্য যেন সকলে সোচ্চার হয়ে উঠেছে।

সচেতনভাবে ফেসবুক ব্যবহার না করলে যেকোনো সময় আমরা নিজেরাও হয়ে যেতে পারি মারাত্মক বিপদের শিকার। সেক্ষেত্রে ফেসবুক আইডিকে সংরক্ষণ করা বা হ্যাকারের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য কিছু উপায় আলোচনা করা হলো।

# যখন আমরা ফেসবুকে কনভার্সেশন করি বা একে অপরের সাথে তথ্য আদান প্রদান করি তা যদি কিছু গোপনীয় হয়ে থাকে অবশ্যই সেটিকে সঙ্গে সঙ্গে মুছে ফেলতে হবে। মনে রাখতে হবে আমাদের সেনসিটিভ কনভার্সেশন গুলো হতে পারে আমাদের উপর ব্ল্যাকমেইল করার একটি বড় হাতিয়ার। যার ফলে হ্যাক হওয়ার পর হ্যাকার খুব সহজেই আমাদেরকে ব্ল্যাকমেল করতে পারবে এ সকল তথ্য দেখিয়ে। তাই এরূপ সকল গোপনীয় কনভারসেশন গুলোকে সাথে সাথেই মুছে ফেলতে হবে বা ডিলিট করে দিতে হবে যাতে করে এটি পরবর্তীতে পাওয়া না যায়।

# আমাদের ফেসবুক প্রোফাইল তৈরি করার ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয় পত্র মোতাবেক ফেসবুক প্রোফাইল তৈরি করতে হবে যাতে জন্মতারিখ নাম সঠিক করে লিখতে হবে। সম্প্রতি দেখা যায় বিভিন্ন অজানা নামে ফেসবুক আইডি খোলা হয় যেমন ডান্সার বয় এঞ্জেলবার্ট অবাক প্রেম ইত্যাদি সকল ফেক নামে। যা আমাদের পরিহার করতে হবে এবং ফেসবুক এর মাঝে সঠিক নাম প্রদান করে আইডি ও একাউন্ট খুলতে হবে। অস্বাভাবিক নামের কারণে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ফেক ভেবে বিপদের আশঙ্কা মনে করে একাউন্টটিকে বাদ করে দিতে পারে।

# নানাবিধ হ্যাকাররা হ্যাকিং এর ক্ষেত্রে বিভিন্ন ফিশিং লিংক ব্যবহার করে থাকে যা আমাদের সকলকে চিনতে হবে। এসকল ফিশিং লিংক আমাদের কাছে আসলে তা যত দ্রুত সম্ভব পরিহার করতে হবে কোনোভাবেই এতে ক্লিক অথবা এর ভেতরে যাওয়ার চেষ্টা করা যাবে না। এসকল ফিশিং লিংক দ্বারা হ্যাকাররা খুব সহজেই আমাদের আইডি কে তাদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিতে পারবে যা আমরা সহজে বুঝতে পারব না।

# সব সময় ফেসবুকে একটি সক্রিয় মোবাইল নাম্বার যোগ করে রাখুন আপনার কন্ট্রোলে থাকে। বিদেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে কিছু কোড জেনারেট করে রাখুন যাতে করে আপনি আপনার ফোন দ্বারা বিভিন্ন জরুরী সময় এটিকে ব্যবহার করতে পারেন।

# আপনার প্রোফাইলের লিঙ্ক সবসময় মনে রাখতে হবে বা কোথাও সংরক্ষণ করে রাখতে হবে যাতে একটি হ্যাক হয়ে গেল খুব সহজে আপনি পুনরায় এটিকে রেফার করতে পারেন।

# ফেইসবুক এর সেটিংস এ গিয়ে আপনি খুব সহজেই ৩ থেকে ৫ জনের বিশ্বস্ত মানুষের কন্টাক্ট নাম্বার এড করতে পারেন যারা বিপদের সময় আপনাকে সাহায্য করতে পারবে। ে ক্ষেত্রে অবশ্যই বিশ্বস্ত লোকের কন্টাক্ট নাম্বার যোগ করা ভালো।

# ফেসবুক আইডি খোলার সময় যে ইমেইল আইডি দিয়ে ফেসবুক খোলা হয়েছে তার পাসওয়ার্ড এবং সঠিক তথ্য মনে রাখতে হবে বা কোথাও সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। আপনার একই নামে দুটি ইমেইল একাউন্ট খোলা যেতে পারে যেমন ইয়াহু মেইল এবং অপর টি জি মেইল দ্বারা পরিবর্তন করা যেতে পারে এতে করে একটি হ্যাক হয়ে গেল অপরটি খুব সহজে পাওয়া যেতে পারে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...