The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

২৪ ঘণ্টায় ৯৩২: আর কতো মৃত্যু দেখবে স্পেন?

মোট মৃতের সংখ্যাটা এখন ১০ হাজার ৯৩৫

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ লাশের সারি যেনো ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে ইউরোপের দেশ স্পেনে। প্রতিদিন দেশটির শত শত মানুষের প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে মহামারি করোনা ভাইরাস।

২৪ ঘণ্টায় ৯৩২: আর কতো মৃত্যু দেখবে স্পেন? 1

গতকাল (শুক্রবার) দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত আরও ৯৩২ জন মৃত্যুবরণ করেছে।

কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেখা যায়, গত একদিনে ৯ শতাধিক মানুষের মৃত্যু হলেও মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসছে দেশটিতে। গতদিন স্পেনে করোনা আক্রান্ত ৯৫০ জনের মৃত্যু ঘটে। মোট মৃতের সংখ্যাটা এখন ১০ হাজার ৯৩৫ জন।

চীনে প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়া হওয়া এই করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে ইতালিতে। স্পেনে হলো দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। দেশটিতে ১০ সহস্রাধিক মৃত্যুর পাশাপাশি আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ১ লাখ ১৭ হাজার ৭১০ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৬ হাজারের বেশি রোগীর অবস্থা বর্তমানে আশঙ্কাজনক।

করোনায় শুধু প্রাণহানিই নয়, মন্দায় পড়েছে স্পেনের অর্থনীতিও। মহামারি শুরুর পর হতে দেশটিতে চাকরি হারিয়েছেন প্রায় ৯ লাখ মানুষ। এদের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি হলেন অস্থায়ী কর্মী। প্রায় ৩ বছর পর দেশটিতে বেকারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৫ লাখেরও অনেক বেশি।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালির পর করোনার ভয়াবহ প্রকোপের মুখোমুখি পড়েছে স্পেন। দেশটিতে করোনার বিস্তার ঠেকাতে বিভিন্ন ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হলেও তা সফল হচ্ছে না মোটেও। আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ায় দেশটির স্বাস্থ্যসেবা খাত প্রায় ভেঙে পড়তে চলেছে।

উল্লেখ্য, করোনার বিস্তার ঠেকাতে স্পেনে গত ১৪ মার্চ জরুরি অবস্থা জারির পাশাপাশি নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার এবং ওষুধের দোকানপাট ছাড়া অন্যান্য সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে ইতিমধ্যেই। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী অবশ্য বলেছেন যে, পরিস্থিতি স্থিতিশীল হচ্ছে এবং করোনা গতিও কমে আসছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...